“ভাগ্য বদলাতে” সোশ্যাল মিডিয়ায় অবতীর্ণ হয়েছেন এঞ্জেল, জানুন রহস্য

584

ফেসবুক খুললে প্রায়ই এমন বেশ কিছু অদ্ভুত পোস্ট সামনে আসে, যেখানে কোনো এক দেব-দেবীর ছবি বাধ্যতামূলকভাবে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার ওপর জোর দেওয়া হয়। ছড়িয়ে দিলেই আসবে সুখবর, নতুবা দুঃখের চরম সাগরে নিমজ্জিত হতে হবে। এভাবে নেটিজেনের ভাবাবেগে আঘাত করে প্রতিনিয়ত বেশ কিছু পোস্ট করা হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। সম্প্রতি, এরকমই একটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

তবে এবার কোনো দেবদেবীর ছবি নয়, মানুষের “ভাগ্য বদলাতে” সোশ্যাল মিডিয়ায় যিনি অবতীর্ণ হয়েছেন, তিনি হলেন একজন এলফ তথা ডেভিল তথা এঞ্জেল অথবা পরি। সংস্কার বিশ্বাসীদের কাছে এই বামন আকৃতির বিদঘুটে চেহারার মহিলা বুড়ি-মার গুরুত্ব অপরিসীম। পোষ্টের ক্যাপশন লক্ষ্য করলে দেখা যাবে, সেখানে লেখা রয়েছে এই পোস্ট আজকে শেয়ার করলে কালকের মধ্যেই সুখবর মিলবে। আশ্চর্য ব্যাপার, মানুষ এতে বিশ্বাসও করে নিচ্ছেন।

বিগত কয়েকদিনে এই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে ছড়িয়েছে। আর এর থেকেই প্রশ্ন উঠছে মানুষের শুভবুদ্ধি সম্পন্ন মানুষিকতার উপর। বিজ্ঞানের যুগে এহেন অন্ধবিশ্বাস কিভাবে এত মানুষকে প্রভাবিত করতে পারে, সে সম্পর্কে যথার্থই প্রশ্ন উঠছে। লোককথা অনুযায়ী, ডেভিল তথা এঞ্জেল অথবা পরি আসলে মানুষের মনের নেতিবাচক সত্তাকে দমন করে। অপরপক্ষে ইভিলের প্রভাবে মানুষ কুপথে যায়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টে দাবি করা হচ্ছে, Elf of Luck-এর এই বৃদ্ধার ছবিতে নাকি সেই ইভিলকে পরাহত করার ক্ষমতা আছে। যে কারণে ছবিটি পোস্ট করলেই নাকি ভাগ্য ফিরে যাবে। আশ্চর্যের ব্যাপার, এইরকম পোষ্টের বিরোধিতা করা তো দূরের কথা, এ সম্পর্কে কোনো প্রশ্ন অব্দি তুলছেন না নেটিজেন। ভাগ্য বদলানোর কোনো চেষ্টা না করেই আশা করছেন কোনো এক অলৌকিক ক্ষমতা বলে ভাগ্য ফিরে যাবে। “কর্মণ্যেবাধিকারস্তে মা ফলেষু কদাচন”, গীতার এই সারবত্তা এই রকম পোস্টের কাছে যেন নিমেষের মধ্যেই হার মেনে যায়।