মাটি খুঁড়তে গিয়ে মিলল প্রাচীন তামার মুদ্রা!

10
মাটি খুঁড়তে গিয়ে মিলল প্রাচীন তামার মুদ্রা!

চাকুলিয়ায় সেপটিক ট্যাংকের জন্যে মাটি খুঁড়তে গিয়ে মিলল প্রাচীন তামার মুদ্রা। চাকুলিয়া থানার কানকি ফাঁড়ির বসতপুর এলাকার ঘটনা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বসতপুর এলাকার বাসিন্দা মহম্মদ আলম নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে সেপটিক ট্যাংকের জন্যে মাটি খোঁড়ার কাজ চলছিল। সেই সময় গর্ত থেকে একটি মাটির হাড়ি বেড়িয়ে আসে। সেটি ভাঙতেই পুরোনো মুদ্রাগুলি মেলে। বিষয়টি জানাজানি হতেই সেখানে ভিড় হতে থাকে।

সোনার মুদ্রা পাওয়া গিয়েছে বলে এলাকায় গুজব ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পৌঁছোয় কানকি ফাঁড়ির পুলিশ। সেগুলি তারা উদ্ধার করে নিয়ে যায়। উদ্ধার হওয়া তামার কয়েনগুলি ইংরেজ আমলের বলে জানিয়েছে চাকুলিয়া থানার পুলিশ।

গত মার্চে বিহারের বক্সার জেলায় এরকমই একটি ঘটনা ঘটেছিল। বক্সারের সোনবারসা থানার ওপি এলাকার গিরধর বারাও গ্রামে আলুর খেতে কাজ করার সময় এক মহিলা অত্যন্ত প্রাচীন কিছু স্বর্ণমুদ্রা খুঁজে পান।  ওই মহিলা মাঠে কাজ করছিলেন। সেখানেই জমিতে খননের সময় তিনি প্রথমে ১ টি স্বর্ণমুদ্রা পান। এরপরই তিনি আরও খনন করে ফের ২ টি মুদ্রা খুঁজে পান।

এদিকে, চাষের জমিতে সোনার কয়েন খুঁজে পাওয়ার খবর সারা গ্রামে আগুনের মত পড়ে। এরপরে গ্রামবাসীরাও উপস্থিত হন জমিটির কাছে। জানা গিয়েছে যে, তারপরেও মাটি খুঁড়ে আরও একটি স্বর্ণমুদ্রা পাওয়া যায়। এই ঘটনার খবর জানতে পেরে ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায় পুলিশ। তারপরে ৩ টি স্বর্ণমুদ্রা উদ্ধার করে তারা।

যদিও, ওই মহিলা একজনকে ১ টি কয়েন ২৭ হাজার টাকার বিনিময়ে বিক্রি করে দেন বলেও জানা গিয়েছে।