প্রায় ৪২ বছর আগে তামিলনাড়ুর একটি বিষ্ণু মন্দির থেকে চুরি হয়ে যাওয়া মূর্তি উদ্ধার হল লন্ডনে

5
প্রায় ৪২ বছর আগে তামিলনাড়ুর একটি বিষ্ণু মন্দির থেকে চুরি হয়ে যাওয়া মূর্তি উদ্ধার হল লন্ডনে

১৯৭৮ সালে তামিলনাড়ুর নাগাপাতিন্নামের একটি বিষ্ণু মন্দির থেকে রাম-সীতা এবং লক্ষ্মণের তিনটি মূর্তি চুরি হয়ে যায়। ঐতিহাসিক গুরুত্বসম্পন্ন সেই মূর্তি তিনটি এরপর জলপথে লন্ডনে পাচার করে দেওয়া হয়। তবে লন্ডন পুলিশের উদ্যোগে প্রায় ৪২ বছর পর আবারও দেশে ফিরে এসেছে দেশীয় সম্পদ। সম্প্রতি, ব্রিটেনে অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাসের তরফ থেকে তামিলনাড়ু সরকারের হাতে এই বহুমূল্য মূর্তি তিনটি ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

প্রায় ৪২ বছর আগে পাচারকারীরা তামিলনাড়ুর নাগাপাতিন্নামের বিষ্ণু মন্দির থেকে ওই মূর্তি তিনটি চুরি করে নিয়ে যায়। মূর্তি গুলির গায়ে অসম্ভব সুন্দর কারুকার্য করা ছিল। ফলে স্বভাবতই মুনাফা লাভের উদ্দেশ্যে বিদেশের বাজারে চড়া দামে দেশীয় সম্পত্তি বিক্রি করতে দুবার ভাবেনি অসাধু ব্যবসায়ীরা। সম্প্রতি ভারতীয় দূতাবাসের কাছে লন্ডনে ওই ভারতীয় মূর্তির উপস্থিতি সংক্রান্ত খবর আসে। লন্ডন পুলিশের সহায়তায় মূর্তি তিনটিকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

তবে তল্লাশি চালানোর সময় ভারত থেকে পাচার হওয়া অন্যান্য অনেক দেবদেবীর মূর্তিরও খোঁজ পায় লন্ডন পুলিশ। সেই সকল মূর্তিগুলিকেও উদ্ধার করা হয়েছে বলেই জানা গেছে। উদ্ধার হওয়া মূর্তি গুলির মধ্যে রয়েছে নবম শতাব্দীর প্রতিহার বংশের সময়কালীন একটি ৪ ফুটের শিবের মূর্তি। লন্ডনের এক মূর্তি সংগ্রাহকের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে এই মহামূল্যবান শিবের মূর্তি। ১৯৯৮ সালে রাজস্থানের বারোলির গতেশ্বর মন্দির থেকে চুরি হয় সেটি। এই মূর্তিটিকেও উদ্ধার করার পর রাজস্থান সরকারের হাতে তুলে দেওয়া দিয়েছে ব্রিটেন।