দেশের আইন-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে চূড়ান্ত ব্যর্থ অমিত শাহঃ চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য

3
দেশের আইন-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে চূড়ান্ত ব্যর্থ অমিত শাহঃ চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য

“স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে ব্যর্থ দেশের বর্তমান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ!”, রবিবার রাজ্য শাসকদলের তরফ থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নিয়ে একটি রিপোর্ট কার্ড তুলে ধরা হয়েছে। সেখানে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ব্যর্থতা তুলে ধরেছেন রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। রবিবার তৃণমূল ভবনে একটি সাংবাদিক বৈঠকে অংশগ্রহণ করে চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য বলেন, অমিত শাহের আমলে দেশজুড়ে অশান্তি বৃদ্ধি পেয়েছে!

চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের মতে, অমিত শাহ দেশের আইন-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে চূড়ান্ত ব্যর্থ হয়েছেন। তার আমলেই জম্মু ও কাশ্মীরে প্রায় আট মাসেরও বেশি সময় ধরে অসাংবিধানিকভাবে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছিল। সুপ্রিম কোর্টের হস্তক্ষেপে উপত্যকার বাসিন্দারা ফের ইন্টারনেটের পরিসেবা পেয়েছেন। অপরপক্ষে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন কার্যকর করতে গিয়ে বহু মানুষকে ডিটেনশন ক্যাম্পে যেতে হয়েছে।

রাজ্যের মন্ত্রী এও বলেছেন, সিএএ, এনআরসি, এনপিআর নিয়ে এখনও কোনো সুস্পষ্ট ধারণা দিতে পারেনি কেন্দ্র। অমিত শাহের নিয়ন্ত্রণাধীন দিল্লি পুলিশ জামিয়া মিলিয়ার শিক্ষার্থীদের উপর হামলা চালিয়েছে। দিল্লি হিংসার সময় যখন একের পর এক মানুষের মৃত্যু হচ্ছে, অমিত শাহ তখন চুপ করে বসেছিলেন। আজ তিনিই বাংলার মানুষদের সোনার বাংলা গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখাচ্ছেন! মানুষ তা মেনে নেবেন না।

শুধু তাই নয়, সিআরপিএফ জওয়ানদের জন্য বরাদ্দ রেশনে ৮০০ কোটি টাকা ঘাটতি নিয়েও অমিত শাহকে কটাক্ষ করেছেন চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। কৃষক আন্দোলন নিয়েও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকেই দুষেছেন তিনি। দিল্লির সিঙ্ঘু সীমান্তে প্রবল ঠান্ডার মধ্যে আন্দোলন করছেন কৃষকরা। তাদের বিক্ষোভ সামাল দেওয়ার পরিকল্পনা নেই কেন্দ্রের। অথচ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পুলিশ তাদের উপরেই লাঠিচার্জ করছে! এভাবেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে সরাসরি আক্রমণ করেছেন চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য।