লাউ খেলেও অনেকেই জানিনা লাউয়ের পুষ্টিগুণ, জেনে নিন লাউ এর উপকারিতা

9
লাউ খেলেও অনেকেই জানিনা লাউয়ের পুষ্টিগুণ, জেনে নিন লাউ এর উপকারিতা

লাউ সবজি আমাদের এখানে খুবই প্রচলিত এবং আমরা অনেকেই বিভিন্ন পদের রান্না করে লাউকে খেয়ে থাকি। লাউ আমাদের এখানে প্রচুর পরিমাণে প্রচলিত থাকলেও লাউ বিশেষত আফ্রিকা দেশের সবজি। গ্রাম বাংলার মানুষেরা লাউ সবজিকে নানাভাবে নানা পদের রান্না করে থাকে। লাউয়ের তরকারি থেকে শুরু করে লাউয়ের পাতা অব্দি রান্না করে খেয়ে থাকে গ্রাম বাংলার লোকেরা। এছাড়াও বাংলার মানুষেরা লাউ চাষ করে থাকে নিজেদের বাড়িতে কারণ লাউ চাষ করতে বেশি ঝুট ঝামেলা নেই। তাই আমরা লাউ খেয়ে থাকি কিন্তু আমরা হয়তো অনেকেই জানিনা লাউতে প্রচুর পুষ্টিগুণ রয়েছে।

অনেকের হয়ত অজানা লাউ বিশেষত দুই ধরনের হয়ে থাকে। একটি ধরন হল বারি লাউ এবং আরেকটি ধরন হলো হাইব্রিড লাউ। তারমধ্যে বারি লাউ সারা বছরই চাষ করা হয়ে থাকে। বারি লাউ পুরুষ ও স্ত্রী সবধরনের বীজ রোপন করা হয়। এই প্রজাতির লাউ হালকা সবুজ রঙের হয়, ফুল থেকে সবজি হতে সময় লাগে ৬০-৬৫ দিন। অন্যদিকে হাইব্রিড লাউ গাঢ় সবুজ রঙের হয়ে থাকে আর আকৃতি গোলাকার ও লম্বা হয়। তবে হাইব্রিড লাউ এর প্রচুর পুষ্টিগুণ থাকে যেমন ভিটামিন সি ফসফরাস ক্যালসিয়াম পটাশিয়াম ফ্যাটি অ্যাসিড খনিজ লবন প্রোটিন আইরন।

এছাড়াও লাউ আরো অনেক গুনাগুন রয়েছে তাহল লাউ প্রচুর পরিমাণে ফাইবার রয়েছে। কারো যদি হজমের সমস্যা থেকে থাকে বা কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা থেকে থাকে তাহলে যদি প্রতিদিন খাবারের মেনুতে যোগ করা যায়, তাহলে খুবই ভালো ফলাফল পাওয়া যায়। কারো যদি পাইলসের সমস্যা থাকে তাহলেও এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যেতে পারে। এছাড়াও লাউ ওজন কমানোর ক্ষেত্রে খুবই সাহায্য করে, কেউ যদি ওজন কমাতে চান তাহলে প্রতিদিনের মেনুতে লাউকে যোগ করুন। লাউতে ৯৬ ভাগ জল থাকে, তাই লাউ খেলে আমাদের শরীরে জলের ঘাটতিও মিটে যায় এবং শরীর ঠান্ডা রাখে। কারো যদি তৈলাক্ত ত্বক হয়ে থাকে তাহলে সে ক্ষেত্রে লাউ খেলে উপকার পাওয়া যায়। সেই তৈলাক্ততার হাত থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।