বাস্তুমতে বাড়িতে লাগানো একেবারেই উচিত নয় এই সব গাছ

8
বাস্তুমতে বাড়িতে লাগানো একেবারেই উচিত নয় এই সব গাছ

সবুজ গাছের সম্ভার প্রকৃতির শোভা বাড়ানোর জন্য যথেষ্ট। গাছের উপস্থিতিতেই পৃথিবী সুস্থ থাকতে পারে। গাছের উপস্থিতিই পৃথিবীকে মানুষের বসবাসের যোগ্য করে তুলেছে। তবে শুধু প্রকৃতি কেন! বাড়ির শোভা বাড়ানোর জন্যও গাছের জুরি মেলা ভার। তাই অনেকেই নিজেদের অন্দরমহলকে সুস্থ সতেজ এবং সবুজ রাখতে গাছ লাগান। তবে প্রাচীন বাস্তুশাস্ত্র মতে, বাড়িতে গাছ থাকা একদিকে যেমন শুভ, তেমনি কিছু কিছু গাছ আবার গৃহশান্তি নষ্ট করতে পারে। তাই গাছ লাগানোর সময় বেশ কিছু বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বন করা আবশ্যক। আজকের প্রতিবেদনের বিষয় কোন কোন গাছ বাড়িতে লাগানো একেবারেই উচিত নয়। চলুন তবে দেরী না করে দেখে নেওয়া যাক।

১) সাদা কষ জাতীয় গাছ : কিছু কিছু গাছ রয়েছে যাদের পাতা ছিঁড়লে একপ্রকার সাদা কষ অর্থাৎ আঠা বের হতে দেখা যায়। বাস্তুশাস্ত্র বিশেষজ্ঞরা এইরকম গাছকে বাড়ির পক্ষে অশুভ বলেই দাবি করেন।

২) ক্যাকটাস : ক্যাকটাস জাতীয় কাঁটাগাছগুলি বাড়ির অন্দরমহলের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করলেও বাস্তুমতে এই জাতীয় গাছ ঘরে অশান্তি তৈরী করে। গৃহে এই গাছের উপস্থিতিতে পরিবারের লোকেদের সাথে বিবাদ বিতর্কের জেরে গৃহশান্তি ক্ষুন্ন হয়।

৩) আম, জাম কিংবা তেঁতুল জাতীয় গাছ : অনেকেরই বাড়ির উঠোনে আম , জাম কিংবা তেঁতুল জাতীয় গাছ থাকে। সারাবছর এইসব গাছ থেকে ফল পেয়ে উপকৃত হন বাড়ির সদস্যরা। তবে বাস্তুমতে গৃহে এই জাতীয় গাছের উপস্থিতি অমঙ্গল ডেকে আনতে পারে। এই জাতীয় গাছের কুপ্রভাবে পরিবারের লোকেদের কর্মজীবন কিংবা শিক্ষা জীবন বিঘ্নিত হতে পারে। তাছাড়া এই রকম গাছের কারণে পরিবারের সদস্যরা দুরারোগ্য ব্যাধিতে ভুগতে পারেন।

তাই এইসব গাছ ভুল করেও বাড়ির অন্দরমহলে রাখার কথা ভাববেন না। তবে বাস্তুশাস্ত্র মতে কিছু কিছু গাছ বাড়ির পক্ষে অত্যন্ত শুভ। আর সেইসব গাছের মধ্যে প্রথমেই যার নাম আসে তাহল তুলসী গাছ। বাড়ির উত্তর, পূর্ব অথবা উত্তর-পূর্ব দিকে তুলসী গাছ যদি লাগানো হয় তা বাড়ির পক্ষে অত্যন্ত মঙ্গলকর বলে মনে করা হয়। এছাড়া জুঁই, চাঁপা, বেল ইত্যাদি যেকোনো সুগন্ধি ফুলের গাছের উপস্থিতি গৃহশান্তি বজায় রাখে এবং সেই পরিবারে সুখ বিরাজ করে।