সমস্ত ক্ষমতাশালীরা সুশান্তের জীবন নষ্ট করেছে, এমনই বিতর্কিত মন্তব্য করলেন কামাল আর খান

7
সমস্ত ক্ষমতাশালীরা সুশান্তের জীবন নষ্ট করেছে, এমনই বিতর্কিত মন্তব্য করলেন কামাল আর খান

যেকোনো বিষয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে চিরকাল সোশ্যাল মিডিয়াতে শিরোনামে উঠে আসা একটি নাম হল কামাল আর খান। সোমবার সোশ্যাল মিডিয়াতে তুমুল সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে তাকে। যশরাজ ফিল্মস এবং সমস্ত ক্ষমতাশালীরা মিলে সুশান্ত জীবন নষ্ট করে দিয়েছে। এমন মন্তব্য করে আর একবার খবরের শিরোনামে উঠল কামাল আর খানের নাম। চিরকাল বিতর্কের জন্য তার দুর্নাম অথবা সুনাম দুটোই রয়েছে। সুশান্তের মৃত্যুর পর বায়োপিক করার ঘোষণাও তিনি করেছিলেন, যার জন্য সমালোচনা করা হয়েছিল তাকে নিয়ে। কিন্তু তাতে সত্যি তার কিছু এসে যায় না। একের পর এক বিতর্কিত মন্তব্য করা তার যেন একটি নেশা।

এই সমস্ত বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য তার টুইটার হ্যান্ডেল টি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। তাই এখন তিনি কেআররকে বক্সঅফিসে নামে একটি প্রোফাইল থেকে টুইট করেন। গত ২৭ নভেম্বর তিনি টুইট করে লিখেছিলেন যে, শাহরুখ খান, আমির খান, সালমান খান, অক্ষয় কুমার, অজয় দেবগন, সঞ্জয় দত্ত ,আয়ুষ্মান খুরানা, শাহিদ কাপুর এবং সাইফ আলী খানের Y RF লঞ্চ করেনি। তারা যখন তাদের নিয়ে ছবি তৈরি করেছিল, তারা রীতিমতো তারকা ছিলেন।

এই মন্তব্য করার পর সোশ্যাল মিডিয়াতে কেআর কের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেন অনেকে। অনেকেই তাঁকে হিপোক্রিট বলে আখ্যা দেন। সুশান্ত যখন বেঁচে ছিল, তখন তাকে কখনো খারাপ অভিনেতা বলে উল্লেখ করেছিলেন, আবার যখন সুশান্ত মারা গেলেন, তখন এই ব্যক্তি বললেন যে, অর্জুন কাপুর এবং অন্যান্য তারকার সুশান্তের জীবন নষ্ট করে দিয়েছে।

নিজের ইচ্ছামতো যেকোনো দিকে ঘুরে গিয়ে কমেন্ট করতে থাকেন কে আর কে। এই দ্বিচারিতার বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেকেই। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রেন্ডিং হয়েছে,”দেশ দ্রোহী কে আর কে”। যে কোন ব্যক্তিকে অহেতুক কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে দেবে যে এক প্রকার অন্যায় তা বুঝতে হবে এই ব্যক্তিকে, এমন মন্তব্য করে বহু মানুষ তাদের নিজস্ব মতামত প্রকাশ করেছেন সোশ্যাল মিডিয়াতে।