ফের অবহেলার ছবি মহারাষ্ট্রে! করোনা বিধি উপেক্ষা করেই বন্দুক হাতে নাচানাচি বিয়ের অনুষ্ঠানে

8
ফের অবহেলার ছবি মহারাষ্ট্রে! করোনা বিধি উপেক্ষা করেই বন্দুক হাতে নাচানাচি বিয়ের অনুষ্ঠানে

করোনা বিধ্বস্ত ভারত বর্ষ। দেশের প্রতিটি প্রান্তে আজ অতিক্ষুদ্র ভাইরাসের বিরুদ্ধে মরণপণ লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। দিন প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ এখনো সামলে ওঠা সম্ভব হয়নি। তারই মধ্যে আবার করোনার তৃতীয় ঢেউ নিয়েও চিন্তিত স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। খুব শীঘ্রই ভারতে আছড়ে পড়তে চলেছে সেটি। তবে তাতে কার কি আসে যায়? দেশবাসীর একাংশ যেখানে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে, সেখানে বিয়ে বাড়ির আনন্দ অনুষ্ঠানে মানুষের আনন্দ-ফুর্তিতে কিন্তু কোনো হ্রাস টানা যাচ্ছে না।

সম্প্রতি মহারাষ্ট্রের জলগাঁওয়ের একটি বিয়ের অনুষ্ঠানের দৃশ্য ধরা পড়লো সোশ্যাল সাইটে। সেখানে দেখা যাচ্ছে বরযাত্রীদের কারোর মুখেই কোনো মাস্ক নেই, সামাজিক দূরত্ব বিধি মেনে চলার বালাই নেই! করোনাকে স্রেফ হেলা-ফেলা করার মানসিকতা আজও মানুষের মনে থেকে গিয়েছে। শুধু তাই নয়, করোনা বিধি উপেক্ষা করা ছাড়াও আবার আরো একটি দৃশ্য দেখে ক্ষোভে ফুঁসছেন নেটিজেন।

ওই দৃশ্য দেখা যাচ্ছে বরযাত্রীরা সকলেই মাস্ক ছাড়া একত্রিত হয়ে নাচানাচি করছিলেন। তারই মধ্যে এক ব্যক্তি আবার পিস্তল নিয়ে নাচ করছেন! সাদা রঙের প্যান্ট ও শার্ট পরা ওই ব্যক্তি পিস্তল থেকে কখনো উপরে তুলে ধরছেন, কখনো আবার সেটিকে নাচের তালে তালে নিচে নামিয়ে আনছেন! যা দেখে স্তম্ভিত নেট দুনিয়া। দৃশ্যটি নজর এড়িয়ে যায়নি পুলিশেরও।

প্রকাশ্যে এইভাবে প্রস্তাব নিয়ে নাচানাচি করার শাস্তি পেতে হলো ওই ব্যক্তিকে। পুলিশ ভিডিও মারফত ব্যক্তিকে সনাক্তকরণ করে তাকে গ্রেপ্তার করেছে বলে জানা যাচ্ছে। ধৃত ওই ব্যক্তির নাম ইউনুস প্যাটেল। অপরাধীর বিরুদ্ধে কঠিন দণ্ডবিধির ধারায় কেস দায়ের করা হয়েছে।