অ্যামাজনের পর এবার ভয়ঙ্কর দাবানলের শিকার হলো ক্যালিফোর্নিয়ার জঙ্গল

3
অ্যামাজনের পর এবার ভয়ঙ্কর দাবানলের শিকার হলো ক্যালিফোর্নিয়ার জঙ্গল

অ্যামাজনের পর এবার ভয়ঙ্কর দাবানলের শিকার হলো ক্যালিফোর্নিয়া। সূত্রের খবর, গত তিন সপ্তাহ ধরে ক্রমাগত জ্বলছে ক্যালিফোর্নিয়ার জঙ্গল। কোনোভাবেই আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা যাচ্ছে না। শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, অগ্নিকাণ্ডের ফলে এ পর্যন্ত জঙ্গলের প্রায় ২৫ শতাংশই পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। দাবানলের প্রকোপে পড়েছে স্থানীয় জনজীবন। আগুনের গ্রাসে জঙ্গল সংলগ্ন বহু বাড়ি ঘর পুড়ে গিয়েছে বলে খবর মিলেছে।

শুধু তাই নয়, আগুনের কবলে পড়ে এ পর্যন্ত প্রায় ১১ জন প্রাণ হারিয়েছেন বলে খবর মিলেছে। এরমধ্যে বুধবারেই আগুনে ঝলসে একসাথে প্রায় তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। স্থানীয় সূত্রে খবর, এই দাবানলে প্রকৃত কারণ হলো বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিপাত। বজ্রবিদ্যুৎ থেকেই জঙ্গলে আগুন ছড়িয়ে পড়েছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তার উপর আবার ঝোড়ো হাওয়ার দাপটে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে আগুন।

সরকারের তরফ থেকে উদ্যোগ নিয়ে ইতিমধ্যেই জঙ্গলে পার্শ্ববর্তী এলাকা থেকে প্রায় দুই লক্ষ মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার উদ্দেশ্যে টেক্সাস, নিউ মেক্সিকো, সান ফ্রান্সিসকো-সহ একাধিক জায়গা থেকে প্রায় বারো হাজার দমকলকর্মী আনা হয়েছে। পাশাপাশি আগুন নেভানোর ইঞ্জিনও সরবরাহ করা হয়েছে। দমকল কর্মীদের নিরলস প্রচেষ্টার পরেও আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হচ্ছে না।

ক্যালিফোর্নিয়ার জঙ্গল শুকনো পাতায় ভর্তি থাকায়, আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এদিকে দাবানলের লেলিহান শিখার প্রভাবে ওই অঞ্চলের পরিবেশের তাপমাত্রার রেকর্ড হারে বেড়েছে। সূত্রের খবর, গত সপ্তাহেই ক্যালিফোর্নিয়ার জঙ্গলের আশেপাশের তাপমাত্রা রেকর্ড ৫৪ ডিগ্রিতে পৌঁছে ছিল।

উল্লেখ্য, এর আগে অস্ট্রেলিয়া এবং ব্রাজিলের ভয়াবহ দাবানলের খবর প্রকাশ্যে এসেছিল। আগুনের প্রকোপে জঙ্গলের পাশাপাশি বহু বন্যপ্রাণীর জীবন নষ্ট হয়েছিল। এবার ক্যালিফোর্নিয়ার দাবানলের খবর প্রকাশ্যে আসায় স্বভাবতই পরিবেশপ্রেমীদের মধ্যে উদ্বেগ বাড়ছে।