দীর্ঘ ৬ মাস সমুদ্রে অতিবাহিত করার পর অবশেষে ঠাই মিলল ইন্দোনেশিয়ায়

4
দীর্ঘ ৬ মাস সমুদ্রে অতিবাহিত করার পর অবশেষে ঠাই মিলল ইন্দোনেশিয়ায়

ভাবা যায় টানা ৬ মাস ধরে সমুদ্রের মধ্যে ভেসে থেকে, অবশেষে মাথা গোঁজার ঠাঁই পেল ইন্দোনেশিয়ায়। কাদের কথা বলা হচ্ছে এখানে হয়তো শিরোনামেই বুঝে গেছেন। ২৯৭ জন রোহিঙ্গা যার মধ্যে রয়েছে ১৪ জন শিশু তারা টানা ৬ মাস ধরে সমুদ্রের মধ্যে ভেসে ভেসে এবার গিয়ে সুমাত্রার উত্তর উপকূলের আচেহ প্রদেশে পৌঁছোতে সক্ষম হয়েছেন।

গত রবিবারের ঘটনা, স্হানীয় সূত্রে জানা গেছে আসলে প্রথমে রোহিঙ্গা দের নৌকা প্রথম দেখেন মৎস্যজীবীরা। আর তারা দেখে সুমাত্রার উত্তর উপকূলের মধ্যে অবস্হিত লোখসেমাওয়ে শহরে একটি কাঠের নৌকা ভাসতে দেখা যায়। তারপরে কাছে গিয়ে জানা যায় তারা সেখানে সবাই রোহিঙ্গা। এরপরেই খবর দেওয়া হয় পুলিশের কাছে ও তাদের পরে নিয়ে যাওয়া হয় অস্হায়ী ত্রাণ শিবিরে‌। আর সেখানে গিয়ে দেখা যায় ১৪ জন শিশু ও ১৮১ জন মহিলা আছে সেই দলে।

আসলে এই নিয়ে প্রশাসনের দ্বারা জানা যায়, এই যে রোহিঙ্গা তারা মার্চ মাসেই এই কাঠের নৌকা নিয়ে বাংলাদেশের থেকে বেরিয়ে পরে ও তারপরেই তারা মালেয়শিয়া ও থাইল্যান্ডের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়, কিন্তু তাদের সেই দেশে প্রবেশ করতেই দেয় না সেই দেশের সরকার। এরপফলেই তারা ৬ মাস ধরে সমুদ্রের মধ্যেই ভেসে ছিলেন। এখন যখন তারা ভাসতে ভাসতে ইন্দোনেশিয়ায় পৌঁছান সেখানে তারা মাথা গোঁজার জায়গা পান।