রাজ্যে বিজেপির সহ পর্যবেক্ষক হিসেবে নিযুক্ত হলেন আদিবাসী নেত্রী আশা লকরা

14
রাজ্যে বিজেপির সহ পর্যবেক্ষক হিসেবে নিযুক্ত হলেন আদিবাসী নেত্রী আশা লকরা

সামনের বছর রয়েছে পঞ্চায়েত নির্বাচন। এরপর ২০২৪ সালে লোকসভা নির্বাচন এবং ২০২৬ বিধানসভা নির্বাচন রয়েছে। আসন্ন এই লড়াই উপলক্ষে বিজেপি এখন থেকেই নিজের খুঁটি শক্ত করতে মরিয়া। এই মুহূর্তে রাজ্যের সবথেকে বড় বিরোধীদল বিজেপি। আপাতত পরপর তিনটি লড়াইকে কেন্দ্র করে বাংলা বিজেপির পাখির চোখ হয়ে উঠেছে।

সুনীল বনশালকে এই আসন্ন নির্বাচনগুলির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক হিসেবে নিযুক্ত করা হয়েছে। এছাড়া পূর্ণ সময়ের পর্যবেক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন বিহারের প্রাক্তন স্বাস্থ্য মন্ত্রী মঙ্গল পান্ডে। তার সহকারি হিসেবে নিযুক্ত হয়েছেন রাচি দুবারের মেয়র এবং আদিবাসী নেত্রী আশা লকরা। মঙ্গল পান্ডের নিতিশ কুমারের মন্ত্রীসভার স্বাস্থ্যমন্ত্রী ছিলেন। তিনি বিহারে বিজেপির পরিচিত মুখ।

২০১৩ সালের লোকসভা ভোটের আগে তিনি বিহার বিজেপি সভাপতি হয়েছিলেন। ৪০ টি আসনের মধ্যে ৩১ টি তে জিততে সমর্থ হয়েছিল এনডিএ। লোক সভায় ভালো ফল করার জন্য ২০১৬ সাল পর্যন্ত তিনি রাজ্যসভাপতি পদে বহাল ছিলেন। এরপর থেকেই তাকে বিভিন্ন রাজ্যে নির্বাচনের দায়িত্ব দিয়ে পাঠানো হচ্ছিল। ২০১৮ সালের বিধানসভা নির্বাচনে তিনি কর্ণাটক এবং ২০২১ সালে লোকসভার ঝাড়খন্ডে বিজেপিকে ভালো ফল করিয়েছেন মঙ্গল পান্ডে।

এই ধারাবাহিক সাফল্যের কারণেই এখন পশ্চিমবঙ্গের বিজেপির নেতৃত্ব হয়ে উঠতে চলেছেন তিনি। অন্যদিকে আশা লকরা ২০২১ সালে জাতীয় সম্পাদকের দায়িত্ব পেয়েছেন। এবার তাকে এই রাজ্যের সহ পর্যবেক্ষক হিসেবে নিযুক্ত করা হয়েছে। উত্তরবঙ্গের পাশাপাশি আদিবাসী অধ্যুষিত জঙ্গল মহলকে নিজেদের আওতায় আনার জন্য বিজেপি এই পদক্ষেপ নিয়েছে বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।