প্রাক্তনের সাথে সুসম্পর্ক বজায় রাখতে মেনে চলুন এই কথাগুলি

9
প্রাক্তনের সাথে সুসম্পর্ক বজায় রাখতে মেনে চলুন এই কথাগুলি

সব সম্পর্কই সুষ্ঠুভাবে শেষ পরিণতি পাবে এর কোন মানে নেই, বিচ্ছেদ আসতেই পারে সম্পর্কের মধ্যে। তবে কোন সম্পর্কের বিচ্ছেদ হওয়া মানে এই নয় যে তার জীবনটা সেইখানেই থেমে গেল। সময়ের স্রোতে জীবন ও আস্তে আস্তে এগিয়ে যায়। কোন সম্পর্কের বিচ্ছেদ হওয়ার পরেও অনেক সময় শোনা যায় তারা একে অপরের ভালো বন্ধু হয়ে আছে, কিন্তু তার মধ্যে কতটা সত্য সেটা বলা যায় না। অনেক সময় শোনা যায় প্রাক্তন গার্লফ্রেন্ড বা প্রাক্তন বয়ফ্রেন্ড একে অপরের বেশ ভালো বন্ধু কিন্তু একটি সম্পর্ক ভাঙার পিছনে একে অপরের দোষ থাকে ফলে পরবর্তীকালে তারা কতটা ভাল বন্ধু সে বিষয়ে সন্দেহ থেকেই যায়। মনে করা হচ্ছে সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পরে প্রাক্তন এর সাথে যদি একটি সুসম্পর্ক বজায় রাখতেই হয় তবে সেই ক্ষেত্রে প্রাক্তন এর জন্মদিনে উইশ না করাই ভালো। অবশ্য এর পিছনে কিছু বিশেষ কারণ বর্তমান, আসুন সেই কারণগুলো জেনে নেওয়া যাক

একটি সুসম্পর্ক থাকার সময় কিছু মুহূর্ত বিশেষ থাকে যেমন এমন কিছু বিশেষ সুন্দর মুহূর্ত আপনারা কাটিয়েছেন সেইগুলি হয়তো ভোলার নয় কোনদিনও, ফলে এখন সম্পর্কে না থাকলেও প্রাক্তনকে তার জন্মদিনে উইশ করা মানে এই নয় যে সে আনন্দিত হবে। হতেই পারে তার এই বিশেষ দিনটিতে আপনার থেকে উইশ পেয়ে পুরনো স্মৃতি মনে পড়ে গিয়ে মনের মধ্যে দুঃখের বাসা বেধেছে। তাই কারোর আনন্দের দিন টিকে দুঃখের দিনে পরিণত না করাই ভালো।

সম্পর্ক যখন নেই তারমানে হতেই পারে আপনারা মন থেকে একে অপরের থেকে যথেষ্ট দূরে সরে গিয়েছেন বা আপনার প্রাক্তন হয়তো কোনো ভাবেই চাইছে না আপনার কোনরূপ স্মৃতি তার কাছে থাকুক, এমনটি যদি হয়ে থাকে তবে আপনি যতই উইশ করুন না কেন তা সে কোন মতেই গ্রাহ্য করবে না। কারণ হতেই পারে তার কোনরূপ আশা বা প্রত্যাশা নেই আপনার থেকে।

এমনটি হতে পারে আপনি হয়তো সব ইচ্ছায় সেই সম্পর্ক থেকে বিরতি নিয়েছেন, এর কারণে পরবর্তীকালে আপনি যদি উইশ করতে যান তার ফলস্বরূপ প্রাক্তনের মনে জমে থাকা একরাশ ক্ষোভ এর শিকার আপনাকে হতে হতে পারে।সম্মান হানির আশঙ্কা থেকে যেতে পারে কিছু পরিমাণে অর্থাৎ, আপনি হয়তো ভালো মনেই তাকে উইশ করেছেন কিন্তু আপনার অজান্তেই সেটি হয়তো আপনার সম্মানহানির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আপনার প্রাক্তন হয়তো আপনার শুভেচ্ছাবার্তা টি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করে বলতেই পারেন যে আপনি তাকে এখনো ভুলতে পারেননি।

এমনি এমনি কোন সম্পর্ক ভেঙে যায় না তার পিছনে বিশেষ কিছু কারণ থাকতে পারে। হয়তো দোষ আমারই ছিল তাই সম্পর্ক বেশিদিন টিকে থাকেনি। এর ফলে পরবর্তীকালে বন্ধুত্বের গভীরতা টা পাওয়া খুব কঠিন। হয়তো কিছু সময় উভয় দিক থেকেই সরল মনে বন্ধুত্ব থাকতেই পারে তবে সেই সংখ্যা খুবই কম। তাই অযথা সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পরেও বন্ধুত্বের সম্পর্ক নিয়ে বেশি মাতামাতি না করাই শ্রেয়।