পুরোনো কথা তুলে খোঁচা দেওয়ায় ক্ষুব্ধ অভিনেত্রী সানা খান

6
পুরোনো কথা তুলে খোঁচা দেওয়ায় ক্ষুব্ধ অভিনেত্রী সানা খান

পুরোনো কথা তুলে, সেই নিয়ে ভিডিও বানিয়ে মানুষকে খোঁচা দেওয়ার মধ্যে সার্থকতা কোথায়? পুরনো কথা, যে মানুষ ভুলে থাকতে চান তাকে সেই কথা মনে করিয়ে দিয়ে তাকে মানসিকভাবে আঘাত দিয়ে কোনো লাভ আছে কি? সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মে এই প্রশ্নই তুলেছেন বলিউডের এককালীন জনপ্রিয় মডেল-অভিনেত্রী সানা খান। তার এই পোস্টটিকে ঘিরে স্বভাবতই সোশ্যাল মিডিয়ায় জোর তরজা শুরু হয়েছে।

এক সময় সোশ্যাল মিডিয়ার ট্রেন্ড জুড়েছিলেন সানা খান। বিগ বসের এই প্রাক্তন প্রতিদ্বন্দ্বী তথা সুন্দরী মডেল সানা খান আচমকাই গ্ল্যামার ইন্ডাস্ট্রিকে বিদায় জানিয়ে অনসের সাঈদের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন। এর আগে অবশ্য গ্ল্যামার দুনিয়ার কোরিওগ্রাফার মেলভিন লুইসের সঙ্গে সম্পর্কেও জড়িয়ে ছিলেন তিনি। সেই সম্পর্কের ইতি টেনে শেষমেষ অনসেরকে বিয়ে করে তার সঙ্গেই সুখে সংসার করছেন সানা খান।

তবে সেলেবদের জীবনে বিতর্ক কখনো পিছু হটে না। সানার ক্ষেত্রেও তেমনটা হয়েছে। তাকে ঘিরে যে বিতর্ক দানা বেঁধেছে, তার জবাব সোশ্যাল মিডিয়ার এই পোস্টেই দিয়েছেন সানা। পোস্টে তিনি লিখেছেন, বেশ কিছু মানুষ তার অতীত জীবন নিয়ে বিভিন্ন ভিডিও বানিয়ে তাকে হেনস্থা করার চেষ্টা করছেন। এতদিন তিনি ধৈর্য ধরে সবকিছু সহ্য করেছেন। কিন্তু এবার তার অতীত জীবন নিয়ে ভিডিও বানিয়ে তাতে বাজে মন্তব্য করে তাকে অপমান করা হয়েছে।

এই বিরূপ মন্তব্যকারীদের প্রতি সানার প্রশ্ন, “আপনারা কি জানেন না পুরনো কথা তুলে কারোকে লজ্জাবোধ করানো পাপ?” যিনি এমনটা করেছেন তার কাজে সানা ভীষণ দুঃখ পেয়েছেন বলেই লিখেছেন তার পোস্টে। কে বা কারা তার প্রতি এমন বিরূপ আচরণ করেছেন, সে সম্পর্কে অবশ্য কিছু জানাননি সানা। এ সম্পর্কে তার বক্তব্য, যিনি এমন ভাবে তার সঙ্গে খারাপ আচরণ করেছেন, তার সাথেও একই আচরণ করতে তার মন চায়নি। সানার আবেদন, মানুষকে সময়ের সাথে সাথে বদলানোর সুযোগ দিন!