জীবনের ৩ টি বদভ্যাসের কথা জনসমক্ষে স্বীকার করলেন অভিনেত্রী ইন্দ্রাণী হালদার

4
জীবনের ৩ টি বদভ্যাসের কথা জনসমক্ষে স্বীকার করলেন অভিনেত্রী ইন্দ্রাণী হালদার

জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী – সিনেমা জগতের সাথে তাঁর বহুদিনের আলাপ। নয় নয় করে ৩৬ বছর অতিবাহিত হয়েছে এই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে। নিজের কাজের মাধ্যমে মানুষের মন জয় করেছেন তিনি। তিনি আর কেউ নন, জনপ্রিয় অভিনেত্রী ইন্দ্রাণী হালদার। বড়পর্দার পাশাপাশি ছোটপর্দা অর্থাৎ টেলিভিশনে চুটিয়ে কাজ করছেন তিনি। শতাধিক বাংলা সিনেমায় অভিনয়ের পর ‘শ্রীময়ী’, ‘গোয়েন্দা গিন্নি’ ধারাবাহিকের মধ্য দিয়ে নিজেকে মেলে ধরেছেন অন্যভাবে। এই অভিনেত্রীর মন্ত্রমুগ্ধ ভক্তের সংখ্যাও অনেক। বয়স পঞ্চাশের গণ্ডি পেরোলেও আজও তিনি অন্যতম সফল এক অভিনেত্রী।

শুধু অভিনয় জগত নয়, বাস্তবিক জীবনেও এই অভিনেত্রী বেশ প্রাণচঞ্চল প্রকৃতির। ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে রাখঢাক তেমন পছন্দ করেন না তিনি। তাই সম্প্রতি নিজের জীবনের বেশ কিছু খারাপ অভ্যেস তিনি সরাসরি স্বীকার করে নিয়েছেন। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হওয়া জি-বাংলার টক-শো ‘অপুর সংসার’-এর প্রথম পর্বে তিনি হাজির হয়েছিলেন। এই শোয়ের সঞ্চালনার দায়িত্বে রয়েছেন অভিনেতা শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়। আর তার সামনেই কোনো রাখঢাক না রেখে জীবনের ৩ টি বদভ্যাস একবাক্যেই বলে দিয়েছেন অভিনেত্রী। ইন্দ্রাণীর কথায়, গেম খেলা হল তাঁর জীবনের প্রথম বদভ্যাস। তিনি একেবারে বাচ্চাদের মতো সময় পেলেই গেম খেলতে বসে যান। এমনকি শুটিং-এর মাঝেও সময় পেলে তিনি গেম খেলেন।

অভিনেত্রীর দ্বিতীয় বদভ্যাস তিনি হুটহাট প্রেমে পড়ে যান। এই অভ্যাস তাঁর আজকের নয়। এ প্রসঙ্গে তিনি মজা করে বলেন, “বারে বারে বিভিন্ন জনের প্রতি আমার প্রেম জেগে ওঠে। আমার বর অবশ্য এই বিষয়ে বেশ লিবারাল, ও আমাকে বোঝে”। তাঁর তৃতীয় খারাপ অভ্যাস হল এই যে তিনি নাকি বাস্তবে ভীষণ রাগী। আর তাঁর এই রাগী অভ্যাস সম্পর্কে নাকি তার কাজের জগতের সকলেই অবগত। আর এই অভ্যাস সম্পর্কে সঞ্চালক শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়ও তার জানেন।

সম্প্রতি অভিনেত্রীকে জি-বাংলার রিয়েলিটি শো ‘ঘরে ঘরে জি-বাংলা’র প্রথম ৯ টি পর্বে সঞ্চালিকা হিসেবে দেখা মিললেও তারপর আর তাকে দেখতে পাওয়া যায়নি। তার জায়গায় এখন দেখা যাচ্ছে আরও এক জনপ্রিয় অভিনেত্রী অপরাজিতা আঢ্যকে। এ নিয়ে অবশ্য গুঞ্জনও উঠেছে তুঙ্গে। তবে এ সম্বন্ধে সরাসরি কোনো মন্তব্য করেনি চ্যানেল কর্তৃপক্ষ।