পরিযায়ী শ্রমিক সংক্রান্ত কোনো তথ্য কেন্দ্রের হাতে না থাকায়, ক্ষোভ প্রকাশ করলেন অভিনেতা সোনু সুদ

6
পরিযায়ী শ্রমিক সংক্রান্ত কোনো তথ্য কেন্দ্রের হাতে না থাকায়, ক্ষোভ প্রকাশ করলেন অভিনেতা সোনু সুদ

মঙ্গলবার সংসদের বাদল অধিবেশনে লোকসভাতে পরিযায়ী শ্রমিকদের প্রসঙ্গ ওঠে। এই অধিবেশনে কেন্দ্রের কাছে জানতে চাওয়া হয় করোনা মহামারীর পরিস্থিতিতে লকডাউনের সময় ভিন রাজ্য থেকে কতজন শ্রমিক নিজের রাজ্যে ফিরেছেন এবং ফেরার পথে কতজন দুর্ঘটনাবশত মৃত্যুবরণ করেছেন। পাশাপাশি, মৃত পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য ক্ষতিপূরণের কি ব্যবস্থা করেছে কেন্দ্র, সে সম্পর্কে প্রশ্ন তোলা হয়। তবে কেন্দ্র জানিয়েছে, পরিযায়ী শ্রমিক সংক্রান্ত কোনো পরিসংখ্যান নেই কেন্দ্রের হাতে।

এদিনের অধিবেশনে কেন্দ্রীয় শ্রম মন্ত্রকের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী সন্তোষ গাঙ্গওয়াড় সরাসরি জানিয়ে দেন, লকডাউন এর সময় কত জন শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে সে সংক্রান্ত কোনো পরিসংখ্যান নেই কেন্দ্রের কাছে। অতএব ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কোনো প্রশ্নই উঠছে না। কেন্দ্রের এই জবাবের তীব্র বিরোধিতা করলেন বলিউড সেলিব্রেটি তথা পরিযায়ী শ্রমিকদের কাছে দেবদূত, সোনু সুদ।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন ছবি প্রকাশ করেছেন সোনু। কার্টুনটি এঁকেছেন বিশিষ্ট শিল্পী সতীশ আচার্য। ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে, কেউ একজন সোনুর বাড়ির দরজায় দাঁড়িয়ে তার কাছ থেকে লকডাউনের সময় পরিযায়ী শ্রমিকদের মৃত্যুর পরিসংখ্যান জানতে চাইছেন। তার উত্তরে সোনু বলছেন, তিনি দুঃখিত, তিনি এই প্রশ্নের জবাব দিতে পারবেন না। কারণ সেই সময় তিনি পরিযায়ী শ্রমিকদের সাহায্য করতে ব্যস্ত ছিলেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় এই কার্টুন ছবি পোস্ট করে কেন্দ্রীয় সরকারের রীতিমতো সমালোচনা করলেন সোনু সুদ। উল্লেখ্য, লকডাউনের সময় সোনু অত্যন্ত মানবিকতার সঙ্গে পরিযায়ী শ্রমিকদের নিজের সাধ্যমত সাহায্য করেছেন।তার উদ্যোগেই দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পরিযায়ী শ্রমিকেরা নিজের বাড়িতে ফিরে যেতে পেরেছেন। অনেকের কর্মসংস্থান করে দিয়েছেন সোনু, অনেকের বাড়ি সারিয়ে দিয়েছেন। পড়ুয়াদের জন্য ল্যাপটপ স্কলারশিপের ব্যবস্থাও করেছেন। কেন্দ্রের এই দায়সারা স্বীকারোক্তি তাই মন থেকে মেনে নিতে পারেননি সোনু।