বিশেষজ্ঞদের মতে ইলেকট্রিক স্কুটার কেনার আগে এই কয়েকটি জিনিস মাথায় রাখা প্রয়োজন

8
বিশেষজ্ঞদের মতে ইলেকট্রিক স্কুটার কেনার আগে এই কয়েকটি জিনিস মাথায় রাখা প্রয়োজন

যখন ডিজেল এবং পেট্রোলের দাম হুড়মুড় করে বাড়ছে ঠিক সেই সময়ে বাজারে দেখা দিচ্ছে ইলেকট্রিক স্কুটার এর রমরমা। একদিকে তো রয়েছেই পেট্রোল-ডিজেলের দাম অন্যদিকে রয়েছে ও অন্যান্য পরিবহন ব্যবস্থার অভাব, যার জন্যই বেশিরভাগ মানুষই এবার নিজেই নিজের সঙ্গী হিসেবে পছন্দ করছেন। এরকম একটি সময় এই নেদারল্যান্ডের সংস্থা ওলার তৈরি এক ধরনের ইলেকট্রিক স্কুটার আসছে বাজারে।

এই স্কুটারগুলি পাওয়া যাবে নানান রংয়ের। রংয়ের মধ্যে থাকছে গোলাপি, কালো, সাদা এবং হালকা নীল। ইলেকট্রিক স্কুটারের আলোচনা চলছে এখন গোটা দেশজুড়ে। সবথেকে বড় মজার বিষয় হলো এই স্কুটার ০ থেকে ৫০% চার্জ সম্পূর্ণ হতে সময় নেয় মাত্র ১৮ মিনিট। এই স্কুটার প্রায় ৭৫ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিতে সক্ষম। তবে বিজ্ঞাপনের কথায় কোন রকম ভাবেই না গিয়ে স্কুটার যদি কেউ কিনতে চান তাহলে তাদের অবশ্যই কিছু জিনিস মাথায় রাখতে হবে। আসুন জেনে নিই যে কি কি জিনিস মাথায় রাখা প্রয়োজন।

স্কুটারের কাছে চার্জ একটি বিশেষ ব্যাপার তাই পুরোটাই চার্জ হয়ে যাওয়ার পর সেই চার্জ অনুযায়ী স্কুটার কতটি রাস্তা অতিক্রম করতে পারবে সেই ব্যাপারে বিস্তারিত জেনে নিন। এমন স্কুটার বেশি পরিমাণে রাস্তা অতিক্রম করতে পারবে সেই ধরনের কিনে নিন।

ইলেকট্রিক স্কুটারের পক্ষে একটি সমস্যার ব্যাপার হলো চার্জ ফুরিয়ে যাওয়া, সেই জন্যেই যে পথে আপনি যাচ্ছেন সে ব্যাপারে জেনে নিন যে কোথায় চার্জ দেওয়ার ব্যবস্থা করা যায়। বাড়ি থেকে যখন আপনি সম্পূর্ণ চার্জ দিয়ে গাড়িটা বের করবেন, হতেই পারে রাস্তার কোন জায়গায় চার্জ শেষ হয়ে যাবে। সেক্ষেত্রে আপনাকে মাথায় রাখতে হবে যে চার্জ শেষ হয়ে গেলে আপনি কোথায় চার্জ দিতে পারবেন।

স্কুটারের আরেকটি দিক বিশেষ নজর দিতে হবে সেটা হল গতিবেগ, তাই ইলেকট্রিক স্কুটারের গতি সব সময় সমান হবে তা কিন্তু নয়, সেই জন্যেই কোন স্কুটারের গতি কতটা সে বিষয়ে আগে থেকেই ভালো করে জেনে নেওয়া প্রয়োজন।

ইস্কুটারগুলি খুব হালকা হয়, সেই জন্যই এই ধরনের গাড়ি গুলিতে আপনি কতটা ওজনের জিনিস নিতে পারবেন সে ব্যাপারেও আপনাকে বিস্তারিত জেনে নিতে হবে, নয়তো পরবর্তীকালে সমস্যায় পড়তে হবে।