জ্যোতিষশাস্ত্র মতে শ্বশুর বাড়িতে গিয়ে সুখে ঘর করেন এই ছয় নামের মেয়েরা

9
জ্যোতিষশাস্ত্র মতে শ্বশুর বাড়িতে গিয়ে সুখে ঘর করেন এই ছয় নামের মেয়েরা

মেয়ে হয়ে জন্মানো মানে এক না একদিন তাকে নিজের পরিবার পরিজনদের ছেড়ে শ্বশুরবাড়ি যেতেই হবে। শ্বশুরবাড়ির প্রত্যেক সদস্যদের সঙ্গে মানিয়ে গুছিয়ে থাকলে সংসারে সুখ-স্বাচ্ছন্দ্য বজায় থাকে। আজ জেনে নিন জ্যোতিষশাস্ত্র মতে সেই ছয় নামের মেয়েদের নাম যারা বিয়ের পর শ্বশুর বাড়িতে গিয়ে সুখে ঘর করেন।

‘A’ নামের মেয়েরা : এই নামের মেয়েরা আত্মবিশ্বাসী হন। যেকোনো কাজে দারুন উদ্যোগ নেন তারা। এদের চরিত্র একদম জলের মতো, যে-পাত্রে রাখবেন সেই পাত্রের আকার ধারন করে। এরা বেশ সাহসী মানসিকতার হন। এদের সহজে কেউ দমাতে পারেনা। তাই শ্বশুরবাড়িতে এরা সুখে থাকেন।

‘D’ নামের মেয়েরা : এরা যেকোনো কাজে প্রচন্ড খাটাখাটনি করতে পারেন। এদের চরিত্রের নিজস্বতা রয়েছে। শ্বশুরবাড়ির প্রতি এদের আলাদা টান থাকে। শ্বশুরবাড়ির সদস্যরাও এদের ভালোবাসেন।

‘M’ নামের মেয়েরা : এরা প্রধানত নিজের কাজ নিয়ে ডুবে থাকেন। জীবন সম্পর্কে এদের দৃষ্টিভঙ্গি বেশ সরল। সততা এদের প্রধান বৈশিষ্ট্য। এরা কোনো বিষয়কে জটিলভাবে ভাবতে পারেন না। কাজ এবং পরিবারের প্রতি এরা বেশ সৎ।

‘S’ নামের মেয়েরা : নিজেদের ইচ্ছে শক্তি দ্বারা এরা যে কোনো বাধা অতিক্রম করতে পারেন। বিয়ের ব্যাপারে এরা বেশ ভালো এবং ভরসাযোগ্য হন। স্ত্রী অথবা প্রেমিকা হিসেবেও এরা বিশ্বাসযোগ্য।

‘P’ নামের মেয়েরা : এটা ভীষণ জ্ঞানী হন এবং যেকোনো বিষয়ে এদের শেখার আগ্রহ থাকে প্রবল। যেকোনো বিষয়ে ভেবেচিন্তে ঠান্ডা মাথায় কাজ করতে পারেন। ফলে শ্বশুরবাড়িতে এদের কোনো ঝামেলার মধ্যে পড়তে হয় না।

‘R’ নামের মেয়েরা : এদের চরিত্র অত্যন্ত স্বচ্ছ হয় এবং এরা অত্যন্ত জ্ঞানী স্বভাবের হন। এদের কূটনৈতিক বোধ তুমুল। যা বিপদে-আপদে পরিবার-পরিজনকে সহায়তা করে। পরিবারের আনন্দ এবং শান্তি বজায় রাখতে তারা সবকিছু করতে পারেন।