জ্যোতিষশাস্ত্র মতে রাখি পূর্ণিমায় প্রায় ৪৭৪ বছর পর বিরল ঘটনা ঘটতে চলেছে যা অত্তন্ত্য শুভযোগ

23
জ্যোতিষশাস্ত্র মতে রাখি পূর্ণিমায় প্রায় ৪৭৪ বছর পর বিরল ঘটনা ঘটতে চলেছে যা অত্তন্ত্য শুভযোগ

হিন্দু ধর্ম অনুযায়ী রাখি বন্ধন উৎসব ভাই বোনের মেল বন্ধনের উৎসব। বাঙ্গালীদের মধ্যে যেমন ভাইফোঁটা, তেমন অবাঙ্গালীদের মধ্যে রাখি বন্ধন উৎসব। যদিও এই রাখি উৎসব এখন পালন করে প্রত্যেক বাঙালি। বাঙ্গালীদের মধ্যে এই উৎসব নিয়ে এসেছিলেন কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। এই উৎসব ভ্রাতৃত্ব এবং বন্ধুত্বের। তবে অবাঙালি প্রত্যেক বোনেরা হিন্দু ক্যালেন্ডার অনুযায়ী শ্রাবণ মাসের পূর্ণিমার দিন ভাইয়ের মঙ্গলারার্থে রাখি বেঁধে দেন ভাইয়ের হাতে। দাদা এবং ভাইয়েরা উপহার দেন বোন অথবা দিদিকে। এই দিনে বাড়িতে ভালো খাওয়া-দাওয়া হয় এবং রাতে পার্টি হয় কোন কোন বাড়িতে। ইংরেজি ক্যালেন্ডার অনুযায়ী জুলাই আগস্ট মাসের মধ্যে কোন একদিন রাখি উৎসব হিসেবে পালন করা হয়।

তবে এই বছরের রাখি উৎসব একটু হলেও বিরল। ভাদ্র মাসের পূর্ণিমা তিথি২১ অগাস্ট শনিবার, সন্ধে ০৬:৩০ থেকে শুরু হয়ে পরের দিন ২২ অগাস্ট রবিবার, ০৫:৩৩-এ শেষ হবে। অর্থাৎ দু’দিন থাকছে রাখি উৎসব। তবে বেশির ভাগ মানুষ ২২ অগাস্ট রবিবার এই দিনটিকে উদযাপন করবে। এই বছর রাখি বাঁধার শুভ মুহূর্ত হল ২২ অগাস্ট সকাল ০৬: ১৪ মিনিট থেকে শুরু করে সন্ধে ০৫: ৩৩ মিনিট পর্যন্ত। শুভ মুহূর্তের মোট সময়কাল ১১ ঘণ্টা ১৮ মিনিট।

এইবারের উৎসবটি ভাদ্র মাসের পূর্ণিমা তিথির শুভ লগ্নে অনুষ্ঠিত হবে। রাখি বন্ধন উৎসব পালন করার জন্য এই বছর অনেক সময় পাওয়া যাবে। হিন্দু পঞ্জিকা মতে, রাখি বন্ধন উৎসবে সূর্য, মঙ্গল, বুধ একসঙ্গে সিংহ রাশিতে এসে মিলিত হবে। রাশিচক্র এবং গ্রহের এই মিলনকে শুভ বলে মনে করা হয়। জ্যোতিষশাস্ত্র মতে অনুযায়ী প্রায় ৪৭৪ বছর পরে এমন বিরল ঘটনা ঘটলো। এই দিন বৃহস্পতিবার চন্দ্র এক সরলরেখায় অবস্থান করবে। রাখি উৎসবের দিন গজ কেশরী যোগ তৈরি হবে, যা বহু মানুষের ভাগ্য পাল্টে দেবে। এই যোগ রাজকীয় সুখ-সমৃদ্ধি এনে দেবে মানুষের তাই বহু মানুষের এই দিন থেকে ভালো কিছু হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।