প্রায় ২০০ মহিলাকে বিয়ের টোপ দিয়ে পাচার! গ্রেপ্তার অভিযুক্ত

30
প্রায় ২০০ মহিলাকে বিয়ের টোপ দিয়ে পাচার! গ্রেপ্তার অভিযুক্ত

৭৫ জন সুন্দরীকে বিয়ে, ২০০ সুন্দরীকে বিয়ের টোপ, না এটা কোনও সিনেমার গল্প নয়। নিতান্তই বাস্তবের প্রেক্ষাপট থেকে উঠে এসেছে এই কাহিনী। মধ্যপ্রদেশের ইন্দোর থেকে মুনির নামের এক ব্যক্তিকে সম্প্রতি এই অভিযোগের উপর ভিত্তি করে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বাংলাদেশ থেকে নারী পাচারের অভিযোগ ছিল তার বিরুদ্ধে।

তাকে জেরা করে জানা গিয়েছে যে ৭৫ জন মহিলাকে বিয়ে করেছে সে। শুধু তাই নয় বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে বাংলাদেশ থেকে ২০০ মহিলাকে সে ভারতে নিয়ে এসেছে! কাউকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে কাউকে আবার মোটা টাকার লোভ দেখিয়ে বাংলাদেশ থেকে প্রতি মাসে ভারতে নিয়ে আসতো ওই ব্যক্তি।

পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলার সীমান্ত পেরিয়ে বা জলপথে মহিলাদের ভারতে নিয়ে আসতো সে। তারপর তাদের পৌঁছে দিত গন্তব্যস্থলে। বাংলাদেশের যশোরের বাসিন্দা সে। বিগত পাঁচ বছর ধরে নারীপাচার চক্রের সঙ্গে জড়িত এই ব্যক্তি বাংলাদেশ থেকে মহিলাদের ফুসলিয়ে ভারতে নিয়ে আসতো।

বাংলাদেশ থেকে ভারতে মহিলাদের নিয়ে এসে প্রথমে সে পৌঁছে যেত কলকাতাতে। এরপর তাদের নিয়ে মুম্বাইয়ে চলে যেত। সেখানে মেয়েদেরকে ট্রেনিং দেওয়া হয়। এভাবেই প্রায় ২০০ মহিলাকে দেহ ব্যবসার কাজে নামিয়েছে মুনির! সম্প্রতি তাকে গ্রেপ্তার করে নারীপাচার চক্রের খোলাসা করল পুলিশ।