আমির খানের বিরুদ্ধে ফের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করার অভিযোগ উঠল

7
আমির খানের বিরুদ্ধে ফের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করার অভিযোগ উঠল

হিন্দু বৈবাহিক রীতির অপমান এবং ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করার অভিযোগ উঠল বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা আমির খানের বিরুদ্ধে। তবে শুধুমাত্র আমির খান নয় তার সঙ্গে ট্রোল হয়েছেন কাশ্মীর ফাইল সিনেমার পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রীও।

সম্প্রতি একটি ব্যাংকের বিজ্ঞাপন করতে দেখা গেছে কিয়ারা আডবানি ও আমির খানকে। যেখানে দেখানো হচ্ছে নব দম্পতি বিয়ের সেরে ফেরার পথে একে অপরের সাথে আলোচনায় মত্ত যে তাঁরা কেউই কান্নাকাটি করেনি এবং চিরাচরিত রীতি অনুযায়ী যেখানে মেয়ের শ্বশুরবাড়িতে যাবার কথা দেখা যায় আমির খান তাঁর নিজের শ্বশুর বাড়িতে উঠেছেন কারণ কিয়ারাকে তাঁর অসুস্থ বাবার দেখাশোনা করতে হবে।

সমাজে প্রচলিত নিয়ম রীতির চরম বিরোধিতা করা হয়েছে। যেখানে নতুন বাড়িতে গৃহপ্রবেশ হয় স্ত্রীর সেটা উল্টো হয়েছে স্বামীর গৃহপ্রবেশ হয়েছে। বংশ পরম্পরায় যে রীতি চলে আসছে তাকে লঙ্ঘন করা হয়েছে এবং খোদ আমির খানকে সমাজের এই প্রচলিত রীতিনীতিকে নিয়ে প্রশ্ন করতে দেখা গেছে। যা নিয়ে রেগে গিয়েছেন সোশ্যাল নেটিজেনদের একটি বড় অংশ। তবে ইতিমধ্যে পরিচালক বিবেক আগ্নিহোত্রী তার নিজের টুইটার হ্যান্ডেল এ শেয়ার করেছেন তার নিজস্ব কিছু বক্তব্য। যেখানে তিনি বলেন এই সমস্ত সামাজিক এবং ধার্মিক নীতিগুলোকে পরিবর্তন করার দায়ভার ব্যাংকের উপর গিয়ে কেন পড়ল?

এইউ ব্যাংকের উচিত তার দুর্নীতিমূলক সিস্টেমের কিছু পরিবর্তন আনার চেষ্টা করা তা না করে এই সমস্ত অসভ্যতামী করে বেড়াচ্ছেন তাঁরা। যে কারণে নেট নাগরিকরাও এইউ ব্যাংক বয়কট করার ডাক দিয়েছেন। অনেকেই টাকা তুলে নেবেন বলেও হুংকার জানিয়েছেন এমনকী টাকা জমা দিতে বারনও করেছেন একে অপরকে অর্থাৎ বোঝাই যাচ্ছে সব মিলিয়ে বেজায় চটে রয়েছে সোশ্যাল নেটিজেনরা।