একটি তরুণী শুয়ে রয়েছে বিছানার ওপর কোমর পিঠ মালিশ করে দিচ্ছে একটি গজরাজ, ভাইরাল ভিডিও

8
একটি তরুণী শুয়ে রয়েছে বিছানার ওপর কোমর পিঠ মালিশ করে দিচ্ছে একটি গজরাজ, ভাইরাল ভিডিও

বডি মাসাজ করতে আমরা সকলেই ভালোবাসি। অনেকেই আছেন যারা পার্লারে গিয়ে বডি মাসাজ করে নিজেকে আরো একবার তরতাজা করে তোলেন। কলকাতাতে ফিশ স্পাএর প্রচলন আছে। যেখানে পায়ের পাতায় বিশেষ ধরনের প্রজাতির মাছ এসে আপনাকে কামড় দেবে। তবে সেই কামড়ে আপনার তো লাগবেই না উল্টে চাঙ্গা হয়ে যাবে আপনার শরীর। তবে এত কিছু ছেড়ে আপনি কি কখনো হাতিকে দিয়ে মালিশ করানোর কথা ভেবেছেন? ভাবেননি নিশ্চয়ই।

সম্প্রতি এমনই একটি ভিডিও টুইটারে ভাইরাল হয়েছে যেখানে দেখা যাচ্ছে, একটি তরুণী শুয়ে রয়েছে একটি বিছানার ওপর। তার কোমর পিঠ ভালো করে মালিশ করে দিচ্ছে একটি গজরাজ। তবে আশ্চর্যজনকভাবে এই মহিলার শরীরে কোথাও ব্যথা লাগছে না।

এই ভিডিওটি হলো তাইল্যান্ডের। সেখানে পর্যটকদের মনোরঞ্জনের জন্য হাতিদের আলাদা করে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। তাই আপনি যদি কোনদিন তাইল্যান্ডে বেড়াতে যান, তাহলে আপনার জন্য সেখানে উপস্থিত থাকবে একটি গজরাজ যে আপনার শরীর মালিশ করে আপনাকে ফুরফুরে এবং চাঙ্গা করে দেবে।

যদিও এই ভিডিওটি বেশ পুরনো। কিন্তু তাও ভাইরাল হওয়ার পর এই ভিডিওটা নিয়ে বেশ কিছু বিতর্ক তৈরি হয়েছে। যেহেতু হাতিদের আলাদা করে প্রশিক্ষণ দিতে হয়। তাই জন্মের পর তাকে বিশেষভাবে রাখা হয় মায়ের থেকে আলাদা করে। এটি একটি ভয়ানক অপরাধ। যদিও ইন্দোনেশিয়া এবং তাইল্যান্ডের মত অঞ্চলে এটি খুবই সাধারন ব্যাপার।

বারবার সমালোচনা করার পরও বন্ধ হয়নি এটি। শুধুমাত্র হাতি নয়, ডলফিন থেকে শুরু করে বাঘ, সব রকম জন্তু পরে এই আওতায়। ভারতের ঠিক একই কারণে সার্কাস বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু বারবার প্রতিবাদ করার পরেও তাইল্যান্ডের মানুষ এই ব্যাপারে কর্ণপাত করে না, উল্টে সেখানে রমরমিয়ে চলছে বডি মাসেজের ব্যবসা।