সার্জারি করিয়ে প্রায় ২ ইঞ্চি পরিমাণ উচ্চতা বাড়িয়ে নিলেন এক যুবক

9
সার্জারি করিয়ে প্রায় ২ ইঞ্চি পরিমাণ উচ্চতা বাড়িয়ে নিলেন এক যুবক

দৈহিক সৌন্দর্য্য বৃদ্ধির জন্য মানুষ কত কিছুই না করেন। হাজার রকমের কসমেটিকস ব্যবহারেও সৌন্দর্য্য বৃদ্ধির চাহিদা যেন পূরণ হতে চায় না। তাইতো সৌন্দর্য্যের দুনিয়ায় “কসমেটিকস সার্জারি” বহু আগেই নিজের জায়গা করে নিয়েছে। নাকটা, চোয়ালটা, ঠোঁটটা, যার যেমন ইচ্ছে কসমেটিকস সার্জারি করিয়ে বদলে নিচ্ছেন! বাজারে এসে গিয়েছে নানা রকমের হরমোন ইনজেকশন, যা ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বৃদ্ধি করছে।

বাজারে আবার এমন বেশ কিছু যন্ত্রপাতিও রয়েছে যেগুলি মানুষের দৈর্ঘ্য বৃদ্ধি করতে পারে! এমনই একটি যন্ত্রের সাহায্যে নিজের উচ্চতা প্রায় ২ ইঞ্চি পরিমাণ বাড়িয়ে নিলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এক যুবক। আলফানসো ফ্লোরস, ২৮ বছর বয়সী এক যুবকের দৈহিক উচ্চতা ছিল ৫ ফুট ১১ ইঞ্চি। এমন উচ্চতা যে কোনো পুরুষের ক্ষেত্রে স্বাভাবিক বলেই বিবেচিত হয়। তবে নিজের এই উচ্চতা নিয়ে আলফানসো খুব একটা খুশি ছিলেন না।

স্বভাবতই ছুরি-কাঁচির সাহায্য নিতে হলো তাকে। হার্ভার্ড থেকে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত লাস ভেগাসের অর্থোপেডিক সার্জেন কেভিন দেবীপ্রসাদের তত্ত্বাবধানে বিশেষ এক যন্ত্রের সহায়তায় তিনি নিজের উচ্চতা দুই ইঞ্চি বাড়িয়ে নিয়েছেন। বর্তমানে তার উচ্চতা ৬ ফুট ১ ইঞ্চি। নিজের উচ্চতায় এখন বেশ খুশি আলফানসো। নিজের অ্যাথলেটিক ক্ষমতা বাড়ানোর উদ্দেশ্যেই প্রায় ৭৫ হাজার মার্কিন ডলার অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৫৫ লক্ষ টাকা খরচ করে নিজের উপর এমন অস্ত্রপ্রচার করিয়েছেন তিনি।

এই অস্ত্রপ্রচারটি মূলত এক্স রে নির্ভর অস্ত্রোপচার। এক্ষেত্রে অপারেশনের সময় রোগীর পায়ে ছয়টি ফুটো করা হয়। এই ফুটো দিয়েই একটি বিশেষ যন্ত্র শরীরে প্রবেশ করিয়ে দেওয়া হয়। এই যন্ত্রটিকে বাইরে থেকে রিমোটের সাহায্যে কন্ট্রোল করা যায়। এই যন্ত্রটিই নিজের দৈর্ঘ্য বাড়িয়ে অপারেশনের রোগীর দৈর্ঘ্য বৃদ্ধি করে। রিমোটের সাহায্যে সবটা নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়। সার্জেন জানাচ্ছেন, এই যন্ত্রের মাধ্যমে যতখুশি উচ্চতা বাড়ানো সম্ভব। তবে তার জন্য অবশ্যই খরচ বাড়বে।