শরীরে নজিরবিহীন ট্যাটু করালেন মেক্সিকোর এক যুবক

19
শরীরে নজিরবিহীন ট্যাটু করালেন মেক্সিকোর এক যুবক

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা নিজেদের শরীরে ট্যাটু আঁকতে ভীষণ পছন্দ করেন। শরীরকে যারা সুন্দরভাবে সাজাতে চান তারা অনেকেই ট্যাটু করাতে চান। বুকে, পিঠে, কোমরে, হাতে, পায়ে ট্যাটু করানোর চল রয়েছে ট্যাটুপ্রেমীদের মধ্যে। অনেকে তো আবার সারা শরীরেও ট্যাটু এঁকে ফেলেন। ঠোঁটে এবং জিভেও ট্যাটু করাতে দেখা গিয়েছে অনেককে। কিন্তু তাই বলে পুরুষাঙ্গে পিয়ার্সিং? এমন নজিরও রইলো এবার।

এমনই নজিরবিহীন ভাবে ট্যাটু করালেন মেক্সিকোর এক যুবক। নাম তার মৌরিসিও ড্যানিয়েল গার্সিয়া। তিনি জানাচ্ছেন, ১৮ বছর বয়স থেকেই তিনি তার শরীরে ট্যাটু আঁকা শুরু করেন। বর্তমানে তার শরীরে ১৫০টিরও বেশি ট্যাটু আছে। সারা শরীর জুড়ে রয়েছে ১৯টি পিয়ার্সিং, অর্থাৎ শরীরে ফুটো করে সেখানে পুঁতি বসানো হয়েছে। মৌরিসিও এবার তার পুরুষাঙ্গেও পিয়ার্সিং করিয়ে নিয়েছেন।

কিন্তু কেন এমন ভাবনা এলো তার মাথায়? তিনি নিজেই জানালেন সেই প্রশ্নের জবাব। সঙ্গমের সময় সঙ্গিনীকে সুখী করতেই নাকি এই ভাবনা এসেছিল তার মাথায়। সেই ভাবনার বাস্তবে প্রতিফলন ঘটেছে ২০২০ সালের অপারেশন টেবিলে। চলতি বছরে তিনি আবার পুরুষাঙ্গে পিয়ার্সিং করতে শুরু করেছেন। এইভাবে অপারেশন মারফত পুরুষাঙ্গে পুতি বসাতে তাকে বেশ কষ্ট সহ্য করতে হয়েছে। তবে সঙ্গীনীর জন্য সেই কষ্ট হাসিমুখেই স্বীকার করে নিয়েছেন মৌরিসিও।