চরিত্র নিয়ে কটূক্তি করায় পুলিশ কনস্টেবলকে ধরে পেটালেন এক মহিলা

6
চরিত্র নিয়ে কটূক্তি করায় পুলিশ কনস্টেবলকে ধরে পেটালেন এক মহিলা

সারাবিশ্ব এখন করোনা মহামারী সাথে যুদ্ধ করছে সারা দেশজুড়ে অনেকদিন ধরে লকডাউন চলেছে। কিন্তু যে মানুষগুলো আমাদের নিরাপত্তা দিয়েছে রক্ষা করেছে তারা হল পুলিশ। একেক সময় পুলিশ রা এমন কার্য করে বসেন যার ফলে তাদের নাম খবরে আসে। সেরকমই এক ঘটনা ঘটেছে সাম্প্রতিক, যেখানে এক মহিলাকে একজন কনস্টেবল তার চরিত্র নিয়ে নানা বাজে কথা বলেছে। যার ফলে ওই মহিলা কন্সটেবলকে বাধ্য হয়েছেন মারতে।

ঘটনাটি ঘটেছে মুম্বাইয়ে সাদিকা রামাকান্ত তিওয়ারি ও তার মহসিন খান বাইক নিয়ে যাচ্ছিলেন তাও আবার হেলমেট ছাড়া। এই দৃশ্য দেখে একজন কনস্টেবল তাদেরকে দাঁড় করায় এবং জিজ্ঞেস করে কেন তারা হেলমেট পড়েনি। তারপরেই ওই মহিলার সাথে তর্ক বিতর্ক শুরু, তর্কের শেষে সাদিকা কে তার চরিত্র নিয়ে কথা বলে পুলিশ কনস্টেবল। নিজের চরিত্র নিয়ে কথা শোনার পর সাদিকা নিজেকে সামলাতে পারেনি সে ওই কনস্টেবলের কলার ধরে মারতে থাকে। তারপরে সেখানে মহিলা কনস্টেবল আসে সাদিকা থামানোর জন্য এবং তাদের থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

থানায় নিয়ে যাওয়ার পরে সাদিকার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয় কনস্টেবলকে কলার ধরে মারবার জন্য‌। সাদিকা উল্টে ওই কনস্টেবলের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনে তার সম্বন্ধে চরিত্র নিয়ে কুকথা বলার জন্য। পুলিশ জানিয়ে দেয় ওই মহিলার সম্বন্ধে কোন অভদ্র ভাষায় কথা বলেনি। এই ঘটনায় সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় উঠে গিয়েছে, প্রচুর পরিমাণে ভাইরাল হয়েছে এই ঘটনা‌। অনেক নেটিজেনরা এই ঘটনাটিকে নিয়ে বলেছেন মহিলাটি উচিত হয়নি এই ভাবে কনস্টেবলকে কলার ধরে মারবার।

অন্যদিকে আবার অনেকেই মহিলাটিকে বাহবাও জানিয়েছে তার সাহসিকতার জন্য। শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত এই সম্বন্ধে কঠোর মন্তব্য পোষণ করেছেন তিনি বলেছেন, ওই মহিলার এরকম ধরনের কাজ করা উচিত হয়নি। এই সম্বন্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া উচিত কারণ এর সাথে মুম্বাই পুলিশের সম্মান জড়িত আছে।