মাত্র ১৬৩ টাকার খাবার কিনে ৩ কোটি টাকার মালিক হয়ে গেলেন এক মহিলা!

26
মাত্র ১৬৩ টাকার খাবার কিনে ৩ কোটি টাকার মালিক হয়ে গেলেন এক মহিলা!

মাত্র ১৬৩ টাকার খাবার কিনে সেই খাবার মারফত তিন কোটি টাকার মালিক হয়ে গেলেন এক মহিলা! এমন ঘটনা শুনতে অবাক লাগলেও ঘটনাটি অক্ষরে অক্ষরে সত্যি। নিতান্ত ভাগ্যের জোরেই এই বিপুল পরিমাণ অর্থের মালিক হয়েছেন থাইল্যান্ডের এক মহিলা। সম্প্রতি থাইল্যান্ডের মুদ্রায় ৭০ ভাট অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১৬৩ টাকা দিয়ে খাবার কিনেছিলেন ওই মহিলা। সেই খাবারের মধ্যেই তিনি পেলেন দামি মুক্ত!

একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে এই খবর। সেখানে উল্লেখ করা হয়েছে, সম্প্রতি থাইল্যান্ডের বাসিন্দা কোদচাকর্ন তান্তিইউওয়াটকুল ৭০ ভাট মুদ্রার বদলে সামুদ্রিক শামুক কিনেছিলেন। সেই শামুকের মধ্যেই তিনি পেয়েছেন এমন অমূল্য সম্পদ, দামি মেলো পার্ল! প্রথমটা অবশ্য তিনি এই মুক্তটিকে সাধারন পাথর বলেই ভেবেছিলেন। কিন্তু পরে তার ভুল ভাঙ্গে।

ওই প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, খাওয়ার জন্য কেনা শামুকের মধ্যে হলুদ রঙের পাথর দেখতে পেয়েছিলেন ওই মহিলা। প্রথমটা তার মনে হয়েছিল এটি কোনো সাধারণ পাথর। কিন্তু আদতে সেটি ছিল দামি হলুদ রংয়ের মুক্ত। এই মুক্তের ওজন ছিল ৬ গ্রাম মতো। যার ফলে আন্তর্জাতিক বাজারে এর দাম হয়েছে ৩ কোটি টাকা। মুক্ত পেয়ে প্রথমেই তা বিক্রি করার চেষ্টা করেননি ওই মহিলা।

কারণ তার আশঙ্কা ছিল শামুকের ভেতর মুক্ত পাওয়া গিয়েছে জানতে পারলে দোকানের মালিক হয়তো তা ফিরিয়ে নিতে চাইবেন। তবে বর্তমানে ক্যান্সার আক্রান্ত মায়ের চিকিৎসার প্রয়োজনে টাকা দরকার কোদচাকর্নের। তাই তিনি এবং তার পরিবার ওই মুক্তটি বিক্রি করতে চান। যে কারণে বিষয়টি সকলের সামনে এসেছে।