আচমকাই ১২ হাজার কোটি টাকার মালিক হয়ে গেলেন গুজরাটের এক বাসিন্দা

12
আচমকাই ১২ হাজার কোটি টাকার মালিক হয়ে গেলেন গুজরাটের এক বাসিন্দা

ইদানিং সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে মাঝেমধ্যেই বিভিন্ন সাধারণ মানুষের অ্যাকাউন্টে কোটি কোটি টাকা ঢুকে যাওয়ার খবর শোনা যাচ্ছে। এই যেমন সম্প্রতি ১২ হাজার কোটি টাকার মালিক হয়ে গেলেন গুজরাটের একজন বাসিন্দা। সম্প্রতি তার একাউন্টে প্রায় ১২ হাজার কোটি টাকা ঢুকে যায়। এত বড় অঙ্কের টাকা দেখে তিনি রীতিমত ঘাবড়ে যান।

পরে অবশ্য তিনি নিজের ভুলটি বুঝতে পেরেছিলেন। রমেশ সাগর গত ৫ থেকে ৬ বছর ধরে শেয়ারবাজারে অল্পস্বল্প অর্থ বিনিয়োগ করছিলেন। এক বছর আগে তিনি একটি ডিমট একাউন্ট খুলেছিলেন। এই একাউন্টে ১১৬৭৭ কোটি টাকা ডিপোজিট হয়েছে। এর মধ্যে থেকে তিনি দু কোটি টাকা বাজারে বিনিয়োগ করে ফেলেন।

এই দুকোটি টাকা বিনিয়োগ করার পর তার 5 লক্ষ টাকা আয় হয়েছে। অবশ্যই আট থেকে সাড়ে আট ঘণ্টার মধ্যেই ওই দিন সন্ধ্যেবেলায় তার ডিমট একাউন্ট থেকে বিপুল পরিমাণের টাকা আবার গায়েব হয়ে যায়। প্রযুক্তিগত ত্রুটির কারণে অ্যাকাউন্টে ভুল হয়েছিল বলে তার কাছে একটি মেসেজ এসে পৌঁছায়। ব্যাংকের তরফ থেকে তার কাছে দুঃখ প্রকাশ করা হয়েছিল।

তবে শুধু রমেশ সাগর নন, ওই একই দিনে আরও অনেক গ্রাহকের একাউন্টে বড়সড় অংকের টাকা ঢুকে পড়েছিল। যদিও বেশিক্ষণের জন্য সেই টাকা থাকেনি। এরকম ঘটনা বিগত কয়েকদিন ধরেই ঘটে যাচ্ছে। এর আগে উত্তর প্রদেশের একজন ব্যক্তির ব্যাংকের একাউন্টে তিন হাজার কোটি টাকা ব্যালেন্স ধরা পড়েছিল।