গ্রহ-নক্ষত্রের অবস্থানের পরিবর্তনের জন্য এক বছর আগেই হতে চলেছে মহা কুম্ভের বিরল যোগ

9
গ্রহ-নক্ষত্রের অবস্থানের পরিবর্তনের জন্য এক বছর আগেই হতে চলেছে মহা কুম্ভের বিরল যোগ

মহা কুম্ভের এইরকম বিরল যোগ আসে ১২ বছর পর কিন্তু এবার গ্রহ-নক্ষত্রের অবস্থানের পরিবর্তনের জন্য এই রকম ঘটনা ঘটলো ১১ বছর পর। ২০২১ সালে হরিদ্বারে মহাকুম্ভ যোগের একাদশতম অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। হিন্দু ধর্মের মত অনুযায়ী কুম্ভের সময়ে কুম্ভ পালন করা হয়ে থাকে যে অঞ্চলে এ অনুষ্ঠানটি পালিত হচ্ছে সেই অঞ্চলের সমস্ত জল অমৃতের মতই হয়।

করোনা পরিস্থিতি চলছে এবং এই রকম অবস্থাতে কুম্ভ যোগের ফলে গঙ্গার জল হয়ে উঠবে অমৃতের মতো।

কেন এই মহাকুম্ভ অনুষ্ঠানটি ১২ বছর অন্তরে অনুষ্ঠিত হয়? এর কারণ হলো যেহেতু সমুদ্র মন্থন করতে ১২ বছর সময় লেগেছিল এবং তারপরেই অমৃতের পাত্র পাওয়া গেছিল সেই জন্যেই এই অনুষ্ঠানটি ১২ বছর পরে হয়ে থাকে।

যেহেতু সমুদ্রমন্থনের সময় এখানকার জল হরিদ্দার এবং উজ্জয়নি তে জল পড়েছিল, সেই জন্যেই এই সব জায়গাতে এই উৎসবটি পালিত হয়ে থাকে।

হিসাব অনুযায়ী ১২ বছর পর হলে এই অনুষ্ঠানটি হওয়ার কথা ২০২২ সালে কিন্তু এবারের নক্ষত্র গ্রহের অবস্থান পরিবর্তনের জন্য সেটি এক বছর কমে ১১ বছরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে এ অনুষ্ঠানটি অর্থাৎ এবার এই উৎসবটি অনুষ্ঠিত হবে ২০২১ সালে।

পরিস্থিতির কারণেই সময় অনুষ্ঠিত যে স্নান যাত্রা সেটির তারিখগুলো স্থির করা হবে।

২০২১ সালের ১১ ই মার্চ হবে প্রথম পুন্য স্নান যাত্রা।

১২ই এপ্রিল হতে চলেছে দ্বিতীয় স্নানযাত্রা

১৪ ই এপ্রিল হতে চলেছে তৃতীয় স্নানযাত্রা

২রা এপ্রিল চতুর্থ পর্যায়ের পুন্য স্নানযাত্রা অনুষ্ঠিত হবে।

জানা গেছে যে করোনা পরিস্থিতির সময় যথাযথভাবে নিরাপদ এবং প্রত্যেকে স্নানের কাজটি করতে পারে সে ব্যাপারে প্রশাসন সচেতন থাকবে।