বৃষ্টিকে উপেক্ষা করেই মালদা জেলায় অনুষ্ঠিত হলো দুর্গা পূজা উপলক্ষে শোভাযাত্রা

18
বৃষ্টিকে উপেক্ষা করেই মালদা জেলায় অনুষ্ঠিত হলো দুর্গা পূজা উপলক্ষে শোভাযাত্রা

মালদা,১ সেপ্টেম্বর : প্রাকৃতিক দুর্যোগকে উপেক্ষা করে সারা রাজ্যের পাশাপাশি মালদা জেলাতেও অনুষ্ঠিত হলো দুর্গা পূজা উপলক্ষে শোভাযাত্রা। আন্তর্জাতিক সংস্থা ইউনেস্কো কে ধন্যবাদ জানাতে মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে মালদা জেলাতেও শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়। শোভাযাত্রা শুরুর আগে জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত শতাধিক ক্লাব, জেলা প্রশাসনিক কর্তা এবং স্কুল পড়ুয়ারা উপস্থিত হয়েছিলেন মালদা শহরের বৃন্দাবনী ময়দান এলাকায়।

সেখানে মঞ্চ থেকে ইউনেস্কো কে ধন্যবাদ জানান জেলা প্রশাসনিক কর্তা ও জনপ্রতিনিধিরা। শোভাযাত্রা শুরুর মুহূর্তে, শুরু হয় অঝোরে বৃষ্টি। বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে শোভাযাত্রায় অংশ নেন প্রশাসনিক কর্তা থেকে শুরু করে বিভিন্ন ক্লাবের সদস্য ও ছাত্রছাত্রীরা। উপস্থিত ছিলেন, রাজ্যের প্রতিমন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন, তাজমুল হোসেন, বিধায়ক সাবিত্রী মিত্র, সমর মুখার্জী, রহিম বক্সি, জেলাশাসক নিতিন সিংহানিয়া, পুলিশ সুপার প্রদীপ কুমার যাদব, সদর মহকুমা শাসক সুরেশ চন্দ্র রানো, ইংরেজবাজার পৌরসভার চেয়ারম্যান কৃষ্ণেন্দু নারায়ন চৌধুরী, পুরাতন মালদা পুরসভার চেয়ারম্যান কার্তিক ঘোষ সহ অন্যান্য আধিকারিক ও জনপ্রতিনিধিরা। আন্তর্জাতিক সংস্থা ইউনেস্কো পশ্চিমবঙ্গের দূর্গা পূজাকে হেরিটেজ তকমা দেয়।

বৃহস্পতিবার বিকেলে ইউনেস্কো কে ধন্যবাদ জানাতে সারা রাজ্যের পাশাপাশি মালদা জেলাতেও আয়োজন করা হয় শোভাযাত্রার। দূর্গা পূজার একমাস আগেই উৎসবের সামিল হন ক্লাব কর্তারাও। তবে শোভাযাত্রা শুরু হওয়ার মুহূর্তে বৃষ্টি শুরু হলেও তা উপেক্ষা করে শোভাযাত্রায় অংশ নেয় বিভিন্ন ক্লাবের সদস্যরা। বিভিন্ন বাদ্যযন্ত্র সহযোগে শিব, দুর্গা, কালী সহ বিভিন্ন সাজে শিল্পীরা অংশ নেন শোভাযাত্রায়। মাথায় কলসি নিয়ে শোভাযাত্রায় নৃত্য প্রদর্শন করেন আদিবাসী শিল্পীরা। শোভাযাত্রা শেষে বৃন্দাবনী ময়দান এলাকায় অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে যারা শৃঙ্খলা বদ্ধ ভাবে শোভাযাত্রায় অংশ নেন তাদের পুরস্কৃত করা হয় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে।