সাপ নিয়ে নানা কসরত দেখাতে গিয়ে মৃত্যু ঘটলো এক ব্যক্তির

13
সাপ নিয়ে নানা কসরত দেখাতে গিয়ে মৃত্যু ঘটলো এক ব্যক্তির

সাপ এমন একটি প্রজাতির প্রাণীর যাকে কখনো বিশ্বাস করা যায় না। বিশেষত বিষধর সাপ হলে তো কথাই নেই। বিষধর সাপ নিয়ে কখনো ছেলে খেলা করা উচিত নয়। এর আগে বিষধর সাপ নিয়ে কেরামতি দেখাতে গিয়ে বহু মানুষের মৃত্যু হয়েছে সাপের কামড়ে। একই ঘটনা ঘটেছিল পশ্চিমবঙ্গের দাঁতনের এক ব্যক্তির সঙ্গে। এবার একই ঘটনা ঘটল উত্তরপ্রদেশেও।

নিতাই প্রধান নামের ওই ব্যক্তির সম্প্রতি মৃত্যু হয়েছে সাপের কামড়ে। তিনি একটি বাড়ি থেকে বিষাক্ত গোখরা সাপ উদ্ধার করেছিলেন। পরে সেই সাপ নিয়ে তিনি গ্রামবাসীদের সামনে নানা কসরত দেখাতে যান। অসাবধানতাবশত সেই সাপ তাকে ছোবল মেরে বসে। এরপর তাকে এগরা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে সাপের ছোবলে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথেই তার মৃত্যু হয়।

উত্তরপ্রদেশের শাহজাহানপুরে দেবেন্দ্র মিশ্র নামের এক ব্যক্তি প্রতিবেশীর বাড়িতে ঢুকে বিষধর সাপ উদ্ধার করেন। তারপর নানা কায়দা দেখাতে থাকেন তাকে নিয়ে। একটি মাত্র লাঠির সাহায্যে তিনি সাপটিকে ধরেছিলেন। সাপটিকে গলায় পেচিয়ে সারা গ্রামে ঘোরেন তিনি। শুধু তাই নয় একটি শিশুর গলাতেও তিনি বিষাক্ত সাপ পেঁচিয়ে ধরেন। সাপটিকে উদ্ধার করার দু’ঘণ্টা পরে ঘটে যায় মর্মান্তিক ঘটনা। তবে তারপরেও হাসপাতালে না গিয়ে একাধিক টোটকা এবং ওষুধ ক্ষতস্থানে লাগান তিনি। শেষ পর্যন্ত কয়েক ঘন্টার মধ্যে তার মৃত্যু হয়।