সম্প্রতি সমুদ্রগর্ভ থেকে উদ্ধার হলো প্রায় 900 বছরের পুরনো একটি তলোয়ার

20
সম্প্রতি সমুদ্রগর্ভ থেকে উদ্ধার হলো প্রায় 900 বছরের পুরনো একটি তলোয়ার

প্রাচীন নিদর্শন, প্রাচীনকালে ব্যবহৃত বিভিন্ন সামগ্রী কার্যত প্রাচীন যুগের ইতিহাসের সাক্ষী। এই সাক্ষী নীরব, অথচ তার ভাষা বুঝতে পারলে হাজার হাজার বছরের পুরনো ইতিহাস যেন চোখের সামনে ভেসে ওঠে। সম্প্রতি ইজরায়েলের সমুদ্রের ভেতর থেকে উদ্ধার হলো প্রায় 900 বছরের পুরনো একটি তলোয়ার। এই তলোয়ারকে প্রাগৈতিহাসিক ইতিহাসের এক অত্যন্ত মূল্যবান সামগ্রী বলে বিবেচনা করছেন ইতিহাস বিশারদরা।

সম্প্রতি একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে প্রতিবেদনে এই তলোয়ার উদ্ধার করার ঘটনা প্রকাশ করা হয়েছে। ইজরায়েলের শলোমি কাটজিন নামের এক ব্যক্তি সমুদ্র সৈকত থেকে উদ্ধার করেছেন এই তলোয়ার। অনুমান করা হচ্ছে এই তরোয়ালটি কোনো এক সৈনিকের তরোয়াল। কোন কারণে তরবারিটি সাগরে পড়ে গিয়েছিল। ভূপৃষ্ঠ থেকে প্রায় 200 মিটার গভীরে পড়েছিল এই প্রাচীন তলোয়ার। এটি ক্রুসেডার তরোয়াল বলে জানা গিয়েছে।

ইজরায়েলের পুরাতত্ত্ববিদ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে যে এই তরোয়ালের বয়স প্রায় নয়শো বছর। এত বছর পরেও কার্যত তরোয়ালটি নিখুঁত অবস্থায় রয়েছে। সরোয়ারদী প্রায় 1 মিটার লম্বা ব্লেড এবং 30 সেন্টিমিটারের হ্যান্ডেল নিয়ে তৈরি।

পুরাতত্ত্ববিদেরা আরও জানিয়েছেন, তরোয়ালটি ছিল একজন যোদ্ধার। যিনি ধর্মীয় যুদ্ধের সময় যুদ্ধ করেছিলেন। ইজরায়েলে সে সময় ধর্মীয় যোদ্ধাদের ক্রুসেডার বলা হত। এখন এই তরোয়াল পরীক্ষা করে দেখে প্রাগৈতিহাসিক সময়কালের অনেক অজানা তথ্য জানা যাবে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।