খেলতে খেলতে একটি হরিণ ছানাকে বন্ধু বানিয়ে ফেলল একটি ৪ বছরের শিশু

10
খেলতে খেলতে একটি হরিণ ছানাকে বন্ধু বানিয়ে ফেলল একটি ৪ বছরের শিশু

বন্ধুত্ব, যে শব্দটির মধ্যে রয়েছে অনেক ভরসা এবং অনেক আবদার। বন্ধুত্ব সমস্ত সম্পর্কের মধ্যেই এমন একটি সম্পর্ক যেটাতে হয়তো একটা মানুষ চোখ বুজেই বিশ্বাস করে নিতে পারে। স্বাভাবিকভাবেই ছোট ছোট শিশুদের মন হয় অনেক পবিত্র এবং এই জন্যই খুব সহজেই যেখানেই যাক না কেন সেখানেই বন্ধু পাতিযে নিতে পারে এবং সে বন্ধুত্ব অবশ্যই হয় ভীষণ গাঢ়।

তবে বন্ধুত্বটা যে শুধুমাত্র মানুষের সঙ্গে মানুষের হয়ে থাকে সেটা নয়, সোশ্যাল মিডিয়ায় মাঝেমাঝেই অনেক অবিশ্বাস্য জিনিস দেখে থাকি যা সত্যিই অনেক সময় মনকে ভীষণ খুশি করে দেয়। বন্ধুত্বের একটি বিশেষ নজির গড়লো একটি ৪ বছরের শিশু।

তার এই অস্বাভাবিক কীর্তি তার মা সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছে এবং খুব সহজেই ভাইরাল হয়ে গেছে। সেই ছবিটি তার মা পোস্ট করে জানান যে, তার ছোট্ট ছেলেটি এমন একটি ঘটনা ঘটিয়ে ফেলবে যা কখনোই ভাবেনি তিনি। বাচ্চাটির মায়ের নাম স্টেফিনি ব্রাউন ।

তিনি বলেন যে, ভার্জিনিয়ার ম‍্যাসানুটেন রিসোর্টে ছুটি কাটানোর জন্য তারা এসেছিলেন, এবং সেখানেই তার ৪ বছরের ছেলে ডমিনিক গিয়েছিল বাগানে খেলতে এবং সেখানে খেলতে গিয়ে একটি ছোট হরিণ বাচ্চার সঙ্গে বন্ধুত্ব পাতিয়ে নেয় সে। বন্ধুত্ব করার পর সেই ছোট্ট হরিণছানাটিকে নিয়ে বাড়ি ফিরে আসে।

স্টেফানি যখন দেখেও হরিণছানা টিকে নিয়ে তার ছেলে এসেছে তখন সে চমকে গিয়েছিল। কিন্তু যখন সে দেখে যে তার ছেলে ওই হরিণটির সঙ্গে বেশ বন্ধুত্বের সম্পর্ক হয়ে গেছে তখন বেশ ভালো লাগে তার। দুই বন্ধুর ছবি তুলেই তার মা সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে, যার পর এই ছবি দেখে মুগ্ধ হয়ে যায় নেটিজেনরা।