ফের ৩২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ হতে চলেছে রাজ্যে! বড়ো ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

21
ফের ৩২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ হতে চলেছে রাজ্যে! বড়ো ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

বাংলায় শিক্ষক নিয়োগ পদ্ধতি সম্পর্কে বরাবর বিতর্কের ঝড় ওঠে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে। শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ায় দুর্নীতি নিয়ে অভিযোগ ইতিপূর্বে বহুবার উঠেছে। যে কারণে বিগত বেশ কয়েক বছর ধরেই আপার প্রাইমারিতে এবং প্রাইমারিতে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ ছিল। হাইকোর্টের নির্দেশে অবশেষে সেই প্রক্রিয়ায় গতি এসেছে। এবার মুখ্যমন্ত্রী চাকরি প্রার্থীদের জন্য বিশেষ ঘোষণা করলেন।

সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নবান্ন থেকে ঘোষণা করে জানিয়ে দিলেন যে পুজোর আগে এবং পুজোর পরে মিলিয়ে প্রায় ৩২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ হতে চলেছে রাজ্যে। পুজোর আগে প্রাইমারিতে ১০,৫০০ প্রাথমিক শিক্ষক এবং পুজোর পরে ১৪,০০০ জন উচ্চ-প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ করা হতে চলেছে বলে জানিয়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। পুজোর পর প্রাথমিকে আবার ৭,৫০০ শিক্ষক নিয়োগ হতে চলেছে।

মুখ্যমন্ত্রী এ দিন জানান যে এতদিন আইনি জটিলতার কারণেই নিয়োগ প্রক্রিয়া থমকে ছিল। তবে এবার আর কোনো বাধা নেই। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, এবার আর কোনো লবি করে নয়। মেধার ভিত্তিতেই শিক্ষক নিয়োগ করা হবে। পুজোর আগে ২৪,৫০০ শিক্ষক এবং পুজোর পরে ৭,৫০০ শিক্ষক চাকরি পাবেন। সব মিলিয়ে আগামী বছর মার্চের মধ্যে মোট ৩২,০০০ শিক্ষক নিয়োগ হতে চলেছে রাজ্য সরকার।

মুখ্যমন্ত্রী এদিন শিক্ষক নিয়োগের ঘোষণা করার সময় জানিয়েছেন, যারা পরীক্ষা দিয়েছেন, পরীক্ষায় যারা পাস করেছেন, তাদের মেধার ভিত্তিতেই নিয়োগ করা হবে। এতদিন কোর্টে কেস চলছিল বলেই নিয়োগ প্রক্রিয়া থমকে ছিল। তবে এবার আর লবি করে চাকরি পাওয়া যাবে না বলেই তিনি জানিয়েছেন।