পুরসভার দূষিত জল পান করায় মৃত ২, অসুস্থ অনেক

11
পুরসভার দূষিত জল পান করায় মৃত ২, অসুস্থ অনেক

কলকাতা পুরসভার জলে মিশেছে বিষ! সেই বিষাক্ত জল পান করে মর্মান্তিক মৃত্যু হলো দুই কলকাতাবাসীর। মৃতদের মধ্যে একজন আবার ওই কলকাতা পুরসভারই কর্মী বলে জানা গিয়েছে। কলকাতা পুরসভার সরবরাহকৃত পানীয় জলে দূষণের কারণে দুইজনের মৃত্যু সহ আরও ৭০ জনের অসুস্থ হয়ে পড়ার খবর পাওয়া গিয়েছে। ঘটনা প্রসঙ্গে গাফিলতির অভিযোগ স্বীকার করে নিয়েছেন কলকাতা পুরসভার চেয়ারম্যান ফিরহাদ হাকিম।

মৃতদের মধ্যে রয়েছেন ভবানীপুরের শশিশেখর বসু রোডে অবস্থিত পুরসভার শ্রমিক আবাসনের বাসিন্দা ভুবনেশ্বর দাস এবং আলিপুর মহিলা সংশোধনাগারের বিচারাধীন বন্দীনী রিমকি তামাং। এছাড়াও কলকাতা পৌরসভার অন্তর্গত ৭৩ ও ৭৪ নম্বর ওয়ার্ডের বেশ কিছু এলাকায় ছড়িয়ে পড়েছে জল দূষণ। যে কারণে বহু মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

কলকাতা পুরসভা সূত্রে খবর, ঘটনার সূত্রপাত হয় দিন সাতেক আগে। কলকাতা পুরসভার শ্রমিক আবাসনের কল থেকেই প্রথম ময়লা জল বের হতে দেখেন আবাসিকরা। যারা সেই জল ইতিমধ্যেই পান করে ফেলেছিলেন তাদের শরীরে নানা রকমের অসুবিধা দেখা যায়। অসুস্থতার দরুন হাসপাতালে ভর্তি হতে শুরু করেন অনেকেই।

এদের প্রত্যেকের শরীরেই ঘন ঘন বমি ও মলত্যাগের লক্ষণ দেখা দিয়েছিল। জল দূষণের বলি পুরসভার চতুর্থ শ্রেণীর শ্রমিক ভুবনেশ্বর দাসসহ এলাকার বহু মানুষ এবং আলিপুর মহিলা সংশোধনাগারের চার বন্দিও অসুস্থ হয়ে পড়েন। যাদের মধ্যে ভুবনেশ্বর দাস পার্ক সার্কাসের একটি নার্সিংহোমে এবং রিমকি তামাং কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।