১২ লক্ষ ভ্যাকসিন গুদামে ফেলে রেখে নষ্ট করা হচ্ছে? মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন দিলীপ ঘোষ

25
১২ লক্ষ ভ্যাকসিন গুদামে ফেলে রেখে নষ্ট করা হচ্ছে? মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন দিলীপ ঘোষ

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে আয়োজিত বৈঠকে আজ দেশের দশটি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর পাশাপাশি বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও উপস্থিত ছিলেন। তবে বৈঠক থেকে বেরিয়েই প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার অভিযোগ, প্রধানমন্ত্রীর এই সভায় তাকে কিছু বলতেই দেওয়া হয়নি! যা বলার প্রধানমন্ত্রী নিজে একাই বলেছেন।

মুখ্যমন্ত্রীর এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এবার তাকে পাল্টা জবাব দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তার পাল্টা প্রশ্ন, রাজ্যে ইতিমধ্যেই যে ১২ লক্ষ্য ভ্যাকসিন রয়েছে তা ব্যবহার করছেন না কেন মুখ্যমন্ত্রী? এদিন তিনি মুখ্যমন্ত্রীকে পাল্টা কটাক্ষ করে প্রশ্ন তোলেন, ” রাজ্য সরকারের হাতে এই মুহূর্তে যে ১২ লক্ষ ভ্যাকসিন রয়েছে তা কেন ব্যবহার করা হচ্ছে না? কেন সেগুলিকে গুদামে ফেলে রেখে নষ্ট করা হচ্ছে?”

দিলীপ ঘোষ আরও বলেছেন, “রাজ্যে মাত্র ১৫,০০০ ভ্যাকসিনেশন সেন্টার খুলেছে সরকার। আরো টিকাকরণ কেন্দ্র কেন খোলা হচ্ছে না?” রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে বিজেপির রাজ্য সভাপতির অভিযোগ, “১৫ জানুয়ারি থেকে যখন টিকাকরণ শুরু হয় তখন মুখ্যমন্ত্রী বা তার মন্ত্রীরা মানুষকে টিকা নিতে উৎসাহ প্রদান করেননি। উল্টে তারা টিকার বাক্স চুরি করেছেন। প্রধানমন্ত্রী নিজে টিকা গ্রহণ করলে সাধারণ মানুষ তাকে দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে টিকা নিতে শুরু করেছেন”।

রাজ্য সরকারকে কটাক্ষ করে দিলীপ ঘোষের মন্তব্য, ” করোনা টিকাকরণ নয়, রাজ্য সরকার এখন কার্যত অভিযুক্তদের জেল থেকে বের করে আনার উদ্দেশ্যে সর্বশক্তি দিয়ে প্রয়াস চালাচ্ছে”!