পুলিশের চাকরি ছেড়ে মডেলিং করে মাসে প্রায় দেড় কোটি টাকা আয় করছেন এই যুবতী

27
পুলিশের চাকরি ছেড়ে মডেলিং করে মাসে প্রায় দেড় কোটি টাকা আয় করছেন এই যুবতী

আমাদের বিভিন্ন জনের বিভিন্ন রকম স্বপ্ন থাকে জীবনে। কেউ সেই স্বপ্ন সফল করতে পারে আবার কেউ পারেন না। তবে স্বপ্ন সফল করার ইচ্ছেটা অনেক বড় বেশি প্রয়োজন।

অদম্য ইচ্ছাশক্তি লাগে তবেই ভাগ্য তাকে তার সেই সফলতা জীবনে এনে দিতে পারে। তেমনই একটি মেয়ের গল্প, হল শার্লট রোজ। তিনি ইংল্যান্ডের এসেক্সের এর বাসিন্দা। খুব একটা রূপকথায় বিশ্বাসী নন এই ২৭ বছরের যুবতী। ছোট থেকেই স্বপ্ন ছিল পুলিশ হবার। পুলিশের চাকরি করার, তা তিনি জীবনের অর্জন করেন। তিনি পুলিশের চাকরি তে জয়েন করেন কিন্তু চাকরি করার সময় তিনি বুঝতে পারেন যে, সেখানে পুরুষদেরই গুরুত্ব বেশি দেওয়া হয়। তিনি কিছুটা আফসোস জনিত কারণে পুলিশের চাকরি ছেড়ে দেন।

এই নিয়ে শার্লট জানান, ডিপার্টমেন্টে বড্ড বেশি পুরুষের দাপট ছিল তা একেবারেই পছন্দ হতো না তার। এক বছরের মাথায় পুলিশের চাকরি ছেড়ে দেন। তবে চটজলদি সিদ্ধান্তে চাকরি ছেড়ে তো দিলেন কিন্তু কী করবেন এরপর জীবনে সেটাই ভাবছিলেন শার্লক। ঠিক সে সময়ই একটি বন্ধু তাকে মডেলিং করার পরামর্শ দেন। শার্লট মডেলিং শুরুও করেন, মহিলাদের অন্তর্বাসের বিজ্ঞাপনে।

তবে খুবই অল্প সময়ের মধ্যে তিনি জনপ্রিয়তা পান। অবশ্য হতেই হবে কারণ সুন্দর শরীরের কদর সবাই দেন। তাতে তিনি উৎসাহবোধ করেন এই অল্প বয়সী তরুণী। সাথে সাথে তিনি নিজের একটা পেজ খুলে নেন, তাতে বিভিন্ন রকম অ্যাডাল্ট ভিডিও ছবিও পোস্ট করতে থাকেন। সম্ভবত এই পেজের প্রভাবেই তার ভাগ্য পরিবর্তন হয়, যার ফলে শার্লকের মাসিক আয় প্রায় দেড় কোটি টাকা।

তার অনুরাগ সংখ্যাও কম নেই, সেই অনুরাগীদের মন রাখতে বিভিন্ন সময়ে তিনি প্রায় প্রতিদিনই ভিডিও ছবি পোস্ট করেন। এর মধ্যেই তিনি তাঁর স্বপ্নের ল্যাম্বরগিনি সেটিও কিনে ফেলেছেন। সত্যি কথা বলতে অন্যের স্বপ্নচারিনী হয়ে বেঁচে থাকার মধ্যেও নিজের জীবনের যে সার্থকতা থাকে তার একটি উৎকৃষ্ট উদাহরণ হল শার্লট। তিনি তার পেজে তার সাধের গাড়ির সাথে একটি নিজের ফটো দিয়েছেন আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে যেটি বহুল চর্চিত হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়াতে।